২ জুন থেকে অনিবন্ধিত সিম বন্ধ শুরু হবে

BTRC News May 30, 2016 1,057
২ জুন থেকে অনিবন্ধিত সিম বন্ধ শুরু হবে

মোবাইল ফোন অপারেটরদের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অনিবন্ধিত সিম বন্ধ করতে দুই দিনেরও বেশি সময় লেগে যেতে পারে। এর আগে ৩০ এপ্রিলের পর অনিবন্ধিত সিম ৩ ঘণ্টা করে বন্ধ রাখার কথা বলা হলেও একই কারণে তা বন্ধ করতে পারেনি অপারেটরগুলো।


(প্রিয় টেক) ৩১ মে মধ্য রাত অর্থাৎ ১ জুন ‘জিরো আওয়ার’ থেকে অনিবন্ধিত সিম স্থায়ীভাবে নিস্ক্রিয় করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও শেষ পর্যন্ত প্রযুক্তিগত কারণে তা সম্ভব হয়ে উঠছে না। চলতি মাসের ৮ মে বিটিআরসি থেকে সকল মোবাইল অপারেটরদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের বরাবর এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। ওই চিঠিতে লেখা হয়েছিল, ৩১ মে ২৩ ঘণ্টা ৫৯ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড পর্যন্ত বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পুনঃনিবন্ধন হয়নি এমন সব সংযোগ স্থায়ীভাবে নিস্ক্রিয় করা হবে। সরকারের সিদ্ধান্তের আলোকে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অপারেটরদের নির্দেশ দেয় বিটিআরসি।


তবে ২৫ মে বিটিআরসি আয়োজিত এক জরুরী সংবাদ সম্মেলনে প্রসঙ্গক্রমে সিম বন্ধ করতে অন্তত দেড় দিন সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছিলেন বিটিআরসির কর্মকর্তারা। এদিকে কয়েকটি মোবাইল ফোন অপারেটরদের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, অনিবন্ধিত সিম বন্ধ করতে দুই দিনেরও বেশি সময় লেগে যেতে পারে। এর আগে ৩০ এপ্রিলের পর অনিবন্ধিত সিম ৩ ঘণ্টা করে বন্ধ রাখার কথা বলা হলেও একই কারণে তা বন্ধ করতে পারেনি অপারেটরগুলো।


এদিকে রোববার সচিবালয়ে আয়োজিত টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের এক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে এয়ারটেলে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পিডি শর্মা এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, নির্ধারিত সময়ে অনিবন্ধিত সিম বন্ধ করার সব ধরনের কারিগরি প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। একই ধরণের কথা বলেছেন গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেন, অনিবন্ধিত সিম বন্ধের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে, এ প্রক্রিয়ায় কোনও সমস্যা থাকবে না।


সম্ভাব্য ২ জুন থেকে অনিবন্ধিত সিম বন্ধ হওয়া শুরু হলেও প্রবাসী ও দেশে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের সিমগুলো পরবর্তী ১৮ মাস পর্যন্ত নিবন্ধনের সুযোগ থাকবে। এ সময়ের মধ্যে বাধ্যতামূলকভবে তাদের সিম পুনর্নিবন্ধন করিয়ে নিতে হবে। তবে বন্ধ হওয়া সিম পুনর্নিবন্ধনের আগ পর্যন্ত সাময়িক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দেড় বছর পরও যদি তারা সিম পুনর্নিবন্ধন করতে ব্যর্থ হন তবে তখন তাদের সিমগুলো অন্য কারও কাছে বিক্রি করে দেয়া হবে।


রোববার সকালে সচিবালয়ে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সিম পুনর্নিবন্ধনের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে গণমাধ্যম কর্মীদের অবহিত করতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, যারা ৩১ মে'র মধ্যে সিম পুনর্নিবন্ধন করতে ব্যর্থ হবেন তাদের সিম বন্ধ হয়ে গেলেও ব্যবহৃত নম্বরগুলো আপাতত কাউকে দেয়া হবে না। তারা নতুন সিম কিনে রেজিস্ট্রেশনের সময় চাইলে পুরোনো নম্বরটি চেয়ে নিতে পারবেন।