বিছানার পাশেই বাগান

হাতে কলমে, টুকিটাকি জিনিস হাতে তৈরি May 15, 2016 5,030
বিছানার পাশেই বাগান

অ্যাকুয়ারিয়াম শব্দটার সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত। যে কাচের চৌবাচ্চায় রঙিন মাছ পোষা হয় তাকেই অ্যাকুয়ারিয়াম বলে। কিন্তু টেরারিয়াম শব্দটি অনেকের কাছেই নতুন। এ শব্দ এসেছে ভিভারিয়াম শব্দ থেকে। ভিভারিয়াম একটি ল্যাটিন শব্দ, যার অর্থ হলো ‘প্লেস অফ লাইফ’ বা জীবনের জন্য জায়গা।




স্বল্প পরিসরে কাচের পাত্র বা বোতলের মধ্যে গাছ বা লতা-গুল্ম লাগিয়ে ঘরের সৌন্দর্য বাড়ানোর যে শিল্প, তাকেই বলা হয় টেরারিয়াম। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটা কাচের বোতলে করা হয় বলে অনেকে এটাকে ‘বটল গার্ডেন’ বা বোতল বাগানও বলে থাকেন।




তো বোতল বাগানের জন্য প্রথমে আপনাকে সংগ্রহ করতে হবে কাচের ফিসবোল, জার বা কাচের অ্যাকুয়ারিয়াম। ইচ্ছে করলে কাচের ইলেকট্রিক বাল্বের মধ্যেও টেরেরিয়াম থৈরি করা যায়।





প্রথমে কাচের পাত্রে আধা ইঞ্চি মাপের পাথরকুচি দিয়ে দেড় ইঞ্চির একটা স্তর বানান। এই স্তরের ওপর অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের আর একটা স্তর তৈরি করুন। অ্যাক্টিভেটেট চারকোল আপনি যে কোনও অ্যাকুয়ারিয়ামের দোকানেই পেয়ে যাবেন। এরপর এর ওপর কী ধরনের গাছ রাখবেন তার ওপর নির্ভর করে দুই থেকে তিন ইঞ্চি পুরু মাটির স্তর বানান।




বোতল বাগানে সাকুলেন্ট জাতীয় (সরস বা রসালো জাতীয়) গাছ রাখতে পারেন। সাকুলেন্ট জাতীয় গাছ হলো সেই ধরনের গাছ যেগুলো কাণ্ড শাখা-প্রশাখা, পাতা বা মূলে পানি জমিয়ে রাখে করে রাখে। তবে এ ব্যাপারে অতিরিক্ত আর্দ্রতার ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের ফার্ন, মস, অ্যালুমিনিয়াম প্ল্যান্ট জাতীয় গাছও রাখতে পারেন অথবা সব ধরনের মিলিয়ে মিশিয়েও রাখা যায়। তবে সে ক্ষেত্রে একটি মূল গাছকে কেন্দ্র করে চাইনিজ বাম্বু, ফার্ন বা আর্টিলারি, ফার্ন, ক্রোটিন, সেডাম প্রভৃতি রাখা যায়, এতে এর সৌন্দর্যও অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে। একটু অভিজ্ঞ হয়ে গেলে আপনি টেরারিয়ামে অর্কিডও রাখতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন, গাছ যেন টেরারিয়ামের আকার অনুযায়ী রাখা হয়।




টেরারিয়ামে প্রয়োজন অনুযায়ী পানি স্প্রে করতে হবে। অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে কাচের গায়ে জলীয় বাষ্প জমলে ওপরের ঢাকনাটা খুলে দিতে হবে। বিভিন্ন পোকার সংক্রমণ থেকে গাছকে বাঁচাতে কীটনাশক এবং ছত্রাকনাশক ব্যবহার করতে হবে।




টেরারিয়াম তৈরি করলেই ঘরের সৌন্দর্য শতভাগ বাড়বে না। পরিপূর্ণ সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে কিংবা বৈচিত্র আনতে টেরারিয়ামে শামুক কিংবা বিভিন্ন রঙিন পাথরও ব্যবহার করতে পারেন।