২৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার কাছে হারল আফগানরা

ক্রিকেট দুনিয়া February 11, 2024 1,665
২৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার কাছে হারল আফগানরা

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৩৮২ রানের বড় লক্ষ্য দিয়েও আফগানদের ব্যাটিং দাপটে একটা সময় হারের শঙ্কায় পড়েছিল শ্রীলঙ্কা। তবে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে লড়াইটাও করতে পারেনি মোহাম্মদ নবি-আজমতউল্লাহ ওমরজাইরা। এদিন মাত্র ১০ রানের মধ্যে ৮ উইকেট বিলিয়ে দিয়ে ১৫৫ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে তারা।


তাতে টানা দুই ওয়ানডে হেরে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ খুইয়েছে আফগানিস্তান। পাল্লাকেলেতে রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) ৩০৯ রান তাড়ায় নেমে লঙ্কানদের বোলিং তোপে ৩৩.৫ ওভারে মাত্র ১৫৩ রানেই গুঁড়িয়ে গেছে আফগানদের ইনিংস। ২৭ রান খরচায় একাই ৪ উইকেট নিয়েছেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।


এদিন অবশ্য শুরুটা খারাপ ছিল না আফগানিস্তানের। রান তাড়ার শুরুটা দেখে মনে হচ্ছিল এবারও হয়তো একটা দারুণ লড়াই দেখবে ক্রিকেট বিশ্ব। যেমনটা দেখা গিয়েছিল সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে।


সে ম্যাচে মাত্র ৫৫ রান তুলতে ৫ উইকেট হারিয়ে বসা আফগানরা ওমরজাই ও নবির ২৪৪ রানের দারুণ জুটিতে ৩৩৯ রান তুলে নিয়েছিল। ৪৫.২ ওভারে নবি আউট না হলে হয়তো ৩৮২ রানের টার্গেটটাও টপকে যেত পারতো তারা। সে তুলনায় এদিন লক্ষ্যটা ছিল কিছুটা কম।


দলীয় ৩১ রানে রহমানউল্লাহ গুরবাজের উইকেট হারালেও দ্বিতীয় উইকেটে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন ইব্রাহিম জাদরান ও রহমত শাহ। তাদের জুটিতে আসে ৯৭ রান। ৭৬ বলে ৬ চারের মারে ৫৪ রান করে আউট হন ইব্রাহিম। ৬৯ বলে ৭ চারের মারে ৬৩ রান করে দলীয় ১৪৩ রানে আউট হন রহমত।


এরপরই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে আফগানদের ব্যাটিং অর্ডার। হাসারাঙ্গা, দিলশান মাদুশাঙ্কাদের তোপে পরবর্তী ১০ রানের মধ্যে বাকি ৭ উইকেট হারিয়ে গুঁড়িয়ে যায় তাদের ইনিংস। ৬.৫ ওভার বল করে ২৭ রান খরচায় একাই ৪ উইকেট তুলে নেন হাসারাঙ্গা। ২টি করে উইকেট নেন দিলশান মাদুশাঙ্কা ও প্রমদ মাদুশান।


এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চারিথ আসালাঙ্কার ৯৭ রানের অপরাজিত বিধ্বংসী ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩০৮ রান করে শ্রীলঙ্কা। ৭৪ বল মোকাবিলায় ৯ চার ও ২ ছক্কায় সাজানো ছিল আসালাঙ্কার ইনিংসটি। এছাড়া ফিফটির ইনিংস ছিল কুশল মেন্ডিস, সাদিরা সামারাবিক্রমা ও জানিথ লিয়ানাগের। আফগানদের পক্ষে ৫৬ রান খরচায় সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন ওমরজাই।


সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে দুদল মুখোমুখি হবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি।