যে কারণে বাতিল করা হয়েছিল ব্রাজিলের প্রথম গোল

ফুটবল দুনিয়া November 29, 2022533
যে কারণে বাতিল করা হয়েছিল ব্রাজিলের প্রথম গোল

সুইজারল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়েছে সেলেসাওরা। সুইসদের বিপক্ষে এদিন বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথমবারের মতো জয়ের দেখা পেয়েছে কোচ তিতের শিষ্যরা। তবে গোলের সংখ্যা আরও বাড়তে পারত। ভিনিসিয়াস জুনিয়রের করা একটি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়। তবে তিনি সেই সময় নিরাপদ স্থানেই ছিলেন!


সোমবার (২৮ নভেম্বর) দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪'এ সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমে আক্রমণে এগিয়ে থাকলেও ফিনিশিং পয়েন্টে গিয়ে বার বার ব্যর্থ হচ্ছিলেন ব্রাজিলের ফরোয়ার্ডরা। যার ফলে প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি সেলেসাওরা। তবে গোলের জন্য চেষ্টা করেছিল রিচার্লিসন-রাফিনহারা।


ফলে দ্বিতীয়ার্ধে একাদশে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন করেন কোচ তিতে। যার ফলও দ্রুত পেয়েছিল তারা। ৬৪ তম মিনিটে মাঝমাঠ থেকে কাসেমিরোর বাড়ানো বল ডি-বক্সে ফাঁকা স্থানে পেয়ে যান ভিনিসিয়াস।


সুইস গোলরক্ষককে একা পেয়ে ঠান্ডা মাথায় বল জালে জড়ান এই তারকা। তবে অফসাইডের কারণে সেই গোল বাতিল করে দেন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি। কিন্তু অফসাইডে তো ভিনি ছিলেন না, তাহলে গোলটি বাতিল করা হয়েছে কেন?


সেই গোলের সময়ে রদ্রিগো বল পাস দেন কাসেমিরোর কাছে। সে বল তিনি দ্রুতই বাঁ দিকে থাকা তা ভিনিসিয়াসকে বাড়িয়ে দেন। যেখান থেকে সুইজারল্যান্ডের ডি-বক্সে ঢুকে গোলকিপার সোমারের পাশ দিয়ে জালে জড়ান তিনি।


তবে ভিএআরে দেখা গেছে, আক্রমণভাগে ভিনিসিয়াস যখন বল পান তখনই অপর প্রান্তে অফসাইডে দাঁড়িয়ে ছিলেন আগের ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোল করা রিচার্লিসন।


যার কারণে গোলের আগে যখন ক্যাসেমিরো বলটি পাস করেন, সেই সময় ভিনি বল স্পর্শ করার আগেই নিজের অবস্থান থেকে নড়ে যান রিচার্লিসন। যার কারণে গোল অফসাইডের কবলে পড়ে বাতিল হয়। ভিনি বল স্পর্শ করার পর রিচার্লিসন স্থান পরিবর্তন করলে এটি অফসাইড হতো না।


সূত্রঃ আরটিভি অনলাইন