রান উৎসবের ম্যাচে ঢাকাকে উরিয়ে দিলো খুলনা

বিপিএল ২০২২ নিউজ January 21, 2022 1,089
রান উৎসবের ম্যাচে ঢাকাকে উরিয়ে দিলো খুলনা

বহুদিন পর মিরপুর শেরে বাংলায় দেখা গেল রান উৎসব। পাওয়া গেল আসল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের স্বাদ। টুর্নামেন্টের হট ফেবারিট তারকাবহুল ঢাকার ছুড়ে দেওয়া ১৮৪ রানের টার্গেট ৬ বল এবং ৫ উইকেট হাতে রেখেই টপকে গেল মুশফিকুর রহিমের খুলনা টাইগার্স। রনি তালুকদারের ৪২ বলে ৬১ রানের ঝড়ো ইনিংস খুলনার জয়ের ভিত গড়ে দেয়।


ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতে নিয়েছেন এই টপ অর্ডার ব্যাটার। বৃথা গেছে তামিমের ফিফটি আর মাহমুদউল্লাহর ঝড়ো ইনিংস।


টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মিনিস্টার ঢাকাকে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল এবং আফগান তারকা মোহাম্মদ শেহজাদ। ৮.১ ওভারে দুজনে গড়েন ৬৯ রানের ওপেনিং জুটি। ২৭ বলে ৮ চারে ৪২ রান করা শেহজাদ রান-আউট হলে এই জুটির অবসান হয়। তামিম শুরুতে একটু ভূগলেও দ্রুতই নিজেকে মানিয়ে নেন। এরপর বেশ দারুণ মেজাজে ব্যাটিং করতে থাকেন। ৪১ বলে তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ৪১তম ফিফটি। তবে ইনিংস আর বড় করতে পারেননি। ফিফটি পূরণ করেই কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে ক্যাচ তুলে দেন নাভিন উল হকের হাতে। ৪০ রানের জুটি ভাঙার পাশাপাশি গতি হারায় ঢাকার ব্যাটিং।


মোহাম্মদ নাঈম শেখ যথারীতি ৩ বলে ৭ রানে ফিরেন। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর সঙ্গী হন আন্দ্রে রাসেল। ৯ বলে এক ছক্কায় ১২ রান করা এই ক্যারিবীয় দানব অনেকটা আলসেমি করতে গিয়েই রান-আউট হয়ে যান। ১০৯ থেকে ১২৫- এই ১৬ রানের মধ্যে তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ঢাকা। কিন্তু অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ আছেন না? তার ব্যাট থেকে বেরিয়ে আসে ২০ বলে ২ চার ৩ ছক্কায় ৩৯ রানের ধ্বংসাত্মক ইনিংস। পরের দিকে কেউ বড় রান করতে পারেননি। ৪৫ রানে ৩ উইকেট নেন কামরুল ইসলাম রাব্বি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮৩ রান তোলে ঢাকা।


রান তাড়ায় নেমে শুরুটা ভালো হয়নি খুলনার। দলীয় ৮ রানেই তানজিদ হাসানকে (২) বোল্ড করে দেন শুভাগত হোম। এরপর ৭২ রানের জুটি উপহার দেন অপর ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার এবং রনি তালুকদার। দুজনের ব্যাটে দেখা যায় নান্দনিক সব স্ট্রোকের ছটা। ২৩ বলে ৭ চার ১ ছক্কায় ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে আউট হন ফ্লেচার। তৃতীয় উইকেটে মুশফিকের সঙ্গে রনির জুটি জমে যাচ্ছিল। কিন্তু খুলনা অধিনায়ক (৬) ইবাদতের বলে আলগা শট খেলে আউট হলে অকালমৃত্যু হয় সম্ভাবনার।


চার নম্বর ব্যাটার হিসেবে আউট হওয়ার আগে রনি তালুকদার খেলেন ৪২ বলে ৭ চার ১ ছক্কা ৬১ রানের ইনিংস। বাকি কাজটা শেষ করেন থিসারা পেরেরা এবং মেহেদি হাসান। লঙ্কান অল-রাউন্ডার খেলেন ১৮ বলে ৬ চারে অপরাজিত ৩৬* রানের ইনিংস। তাকে সঙ্গ দেওয়া মেহেদিও ৫ বলে ১টি করে চার-ছক্কায় ১২* রানে অপরাজিত থাকেন। আন্দ্রে রাসেলের করা ১৯তম ওভারেই ৫ উইকেটে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় খুলনা।


সংক্ষিপ্ত স্কোর:



মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা: ২০ ওভারে ১৮৩/৬ (শাহজাদ ৪২ , তামিম ৫০, নাঈম ৯, মাহমুদউল্লাহ ৩৯, জহুরুল ১২, শুভাগত ৯*, উদানা ৬*; মেহেদি ৪-০-২৪-০, নাভিন ৪-০-৩৮-০, কামরুল ৪-০-৪৫-৩, ফরহাদ ৪-০-৪৩-০, থিসারা ৪-০-২৭-১)


খুলনা টাইগার্স: ১৯ ওভারে ১৮৬/৫ (তানজিদ ২, ফ্লেচার ৪৫, রনি ৬১, মুশফিক ৬, ইয়াসির ১৩, থিসারা ৩৬*, মেহেদি ১২* ; আরাফাত ৪-০-২৮-০, শুভাগত ১-০-৯-১, রুবেল ৩-০-৪২-০, উদানা ৪-০-৩৭-০, রাসেল ৪-০-৪২-২, ইবাদত ৩-০-২৭-২)


ফল: খুলনা টাইগার্স ৫ উইকেটে জয়ী


ম‍্যান অব দা ম‍্যাচ: রনি তালুকদার