রাজশাহীকে হারিয়ে টানা চতুর্থ জয় তুলে নিল চট্টগ্রাম

ক্রিকেট দুনিয়া 2nd Dec 20 at 10:22pm 908
Googleplus Pint
রাজশাহীকে হারিয়ে টানা চতুর্থ জয় তুলে নিল চট্টগ্রাম

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে টানা চতুর্থ জয় তুলে নিল গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। আজ দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে রাজশাহীকে ১ রানে হারিয়েছে চট্টগ্রাম। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৬ রান সংগ্রহ করেছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। জবাবে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী।


টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান লিটন দাস এবং সৌম্য সরকার। ওপেনিং জুটিতে এই দুইজন যোগ করেন ৬২ রান। ২৫ বলে চারটি চার এবং দুটি ছক্কা সাহায্যে ৩৪ রান করে মাহিদুল ইসলাম মুগ্ধর বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সৌম্য সরকার।


তবে এই দিনেও ব্যাট হতে ভালো কিছু করে দেখাতে পারেনি অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। ১১ রান করে আনিসুল ইসলাম ইমনের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুন। এরপরে ১ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন শামসুর রহমান। অন্য প্রান্ত থেকে ৩৫ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন লিটন দাস।


তবে আজ ব্যাট হাতে দারুন করেছেন মোসাদ্দেক হোসেন। লিটন দাসকে সাথে নিয়ে শেষ ওভার পর্যন্ত খেলেছেন তিনি। ২৮ বলে দুটি চার এবং দুটি ছক্কার সাহায্যে ৪২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মোসাদ্দেক হোসেন।


তবে অন্য প্রান্ত থেকে এই টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেন লিটন দাস। ৫৩ বলে ৯ টিচার এবং একটি ছক্কায় সাহায্যে ৭৮ রান করে অপরাজিত থাকেন লিটন দাস।








১৭৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত এবং আনিসুল ইসলাম ইমন। উদ্বোধনী জুটিতে এই দুইজন যোগ করেন ৫৬ রান। ১৪ বলে দুই টিচার এবং দুটি ছক্কা সাহায্যে ২৫ রান করে মুস্তাফিজুর রহমানের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত।


এরপর ৪৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন মোহাম্মদ আশরাফুল এবং আনিসুল ইসলাম ইমন। ১৯ বলে একটি চারের সাহায্যে ২০ রান করে মোসাদ্দেক হোসেনের বলে আউট হন মোহাম্মদ আশরাফুল। ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর বেশি সময় টিকতে পারেননি আনিসুল ইসলাম ইমন।


৪৪ বলে ছয় টিচার এবং একটি ছক্কার সাহায্যে ৫৮ রান করে জিয়াউর রহমানের বলে আউট হন অনিসুল ইসলাম ইমন। রাজশাহীকে জয়ের আশা দেখাতে থাকেন মেহেদি হাসান এবং ফজলে মাহমুদ। তবে দলীয় ১৪২ রানের মাথায় জোড়া ওইকেট তুলে নেয় চট্টগ্রাম।


১৭ বলে দুটি চার এবং একটি ছক্কার সাহায্যে ২৫ রান করে শরিফুল ইসলামের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মেহেদী হাসান। এর পরের ওভারেই ফজলে মাহমুদ উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৯ বলে ১১ রান করেন ফজলে মাহমুদ। শেষের দুই ওভারে খেলা জমিয়ে দেন ফরহাদ রেজা এবং কাজী নুরুল হাসান সোহান।


শেষ ১২ বলে জয়ের জন্য রাজশাহীর প্রয়োজন ২৭ রানের। শরিফুল ইসলামের প্রথম চার বলের মধ্যে একটি চার এবং একটি ছক্কা হাঁকিয়ে খেলা জানিয়ে দেন ফরহাদ রেজা। তবে পঞ্চম বলে ফরহাদ রেজার উইকেট তুলে নেন শরিফুল ইসলাম। ৫ বলে ১২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ফরহাদ রেজা।


শেষ ৬ বলে রাজশাহীর প্রয়োজন ছিল ১৪ রানের। তবে প্রথম বলেই নুরুল হাসান সোহানের উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজুর রহমান। মুস্তাফিজুর রহমানের চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে দেন রনি তালুকদার। এরপরের বলে উইকেট কিপারের পিছন দিয়ে চার মেরে খেলা জমিয়ে দেন রনি তালুকদার। শেষ বলে ৪ মারতে পারেননি রনি তালুকদার। ১ রানে ম্যাচে জয়লাভ করে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।


জিয়াউর রহমান এবং মোসাদ্দেক হোসেন একটি করে উইকেট লাভ করেন। শরিফুল ইসলাম ২ টি এবং মোস্তাফিজুর রহমান তিনটি উইকেট লাভ করেন।


সংক্ষিপ্ত স্কোর


গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ১৭৬/৫ (২০ ওভার)

লিটন ৭৮*, মোসাদ্দেক ৪২, সৌম্য ৩৪;

মুগ্ধ ৩/৩০।


মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী ১৭৫/৭ (২০ ওভার)

ইমন ৫৮, শান্ত ২৪, আশরাফুল ২০;

মুস্তাফিজ৩/৩৭, শরিফুল ২/৪১।


সূত্রঃ বাংলাওয়াশক্রিকেট/ বিডিক্রিকটাইম

Googleplus Pint
Akash Khan
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)