সাকিবের ১ বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ

ক্রিকেট দুনিয়া 28 Oct 2020 at 9:47am 1,212
Googleplus Pint
সাকিবের ১ বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ

৩৬৫ টা দিনও যেন কখনো কখনো সুদীর্ঘ পথ মনে হয়, প্রতিটা দিন প্রতিটা ক্ষণই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে, সময়ের ফ্রেমে বন্ধ রাখা সম্ভব হয় না এক একটা দিন। তবুও নিরুপায়, যতই দুঃখ, কষ্ট কিংবা আক্ষেপ থাকুক না কেন অপেক্ষা করতেই হতো, কাজটা সহজ করে দিয়েছে ক্রিকেটে করোনা বিরতি।


সাকিব আল হাসানকে ছাড়া বাংলাদেশের ক্রিকেট পানসে মনে হয়, দলের সেরা তারকাকে খেলাটা বাংলাদেশের জন্য যতটা বেদনার ঠিক ততটাই আক্ষেপের ভক্ত ও সমর্থকদের জন্য। সাকিবের সাকিবীও পারফর্মেন্সে মুগ্ধ হন না এদেশে এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া মুস্কিলই, তবে গত এক বছর সেই মুগ্ধতা ছড়াতে পারেনি।


আইসিসির দেওয়া নিষেধাজ্ঞায় সব ধরণের ক্রিকেট থেকে বাহিরে ছিলেন সাকিব, নিষেধাজ্ঞাটা দুই বছরের হলেও ১ বছরের স্থগিতাদেশ নিষেধাজ্ঞা থাকায় আজই উঠে যাচ্ছে সব বাধা। আজ রাতে ঘড়ি ১২ টার কাটা স্পর্শ করার সাথে সাথেই নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হয়ে যাবেন সাকিব আল হাসান, কাল থেকেই অংশ নিতে পারবেন সব ধরণের ক্রিকেটীয় কার্যক্রমে।


নিষেধাজ্ঞার কারণটাই ভক্ত-সমর্থকদের জন্য ছিল ভীষণ কষ্টের, বাংলাদেশের সবচেয়ে সচেতন ক্রিকেটার ধরা হয় সাকিবকে। এমসিসির ক্রিকেট কমিটি সহ বেশ কিছু বিষয়ে আইসিসির সাথে সরাসরি যুক্ত ছিলেন তিনি, জানতেন সব নিয়ম-কানুনও। ফিক্সিংয়ের প্রস্তাবে রাজি হননি, কিন্তু আকসুকে জানাননিও সাকিব, তবুও তার মতো একজন কিভাবে এধরণের ভুল করলেন সেটা খুঁজে ফিরেছেন সবাই।


মুলত বিষয়টা গুরুত্ব না দেওয়াটাই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলো সাকিবের জন্য, যা তার ক্যারিয়ার থেকে কেড়ে নিয়েছে পুরো ১ টা বছর। আইসিসির দেওয়া সিদ্ধান্ত মেনে নেন সাকিব, করেন সব ধরণের সহযোগিতা, যে কারণে শাস্তিটাও কম হয়েছে। এই ১ টা বছর সব ধরণের ক্রিকেট থেকে একেবারে দূরে ছিলেন সাকিব আল হাসান, অধিকাংশ সময়ই ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে।


ক্রিকেট থেকে দূরে থাকায় ফেরার আকুতিটাও বেশ শক্তপোক্ত সাকিবের, সেই ফেরার তাড়না থেকেই নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার আগেই আইসিসির নিয়ম-নীতি মেনে গত সেপ্টেম্বরে দেশে ফিরে শুরু করেছিলেন অনুশীলনও। যদিও শ্রীলঙ্কা সফর শেষ পর্যন্ত স্থগিত হয়ে যাওয়ায় অনুশীলন বন্ধ করে পরিবারের কাছে ফিরে যান সাকিব, এরপর থেকে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রেই আছেন তিনি।


সাকিবের নিষেধাজ্ঞার মাঝেই নির্বাসনে গেছিলো ক্রিকেটও, সর্বশেষ গত মার্চে স্বীকৃত ক্রিকেট ম্যাচ খেলেছে টাইগার ক্রিকেটাররা। এরপর থেকেই আর স্বীকৃত ক্রিকেটে খেলা হয়নি কারোরই, আগামী মাসেই শুরু হচ্ছে ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই ক্রিকেটের পাশাপাশি ফিরছেন সাকিব আল হাসানও, অবশ্য এই মাসেই প্রস্তুতিমুলক টুর্নামেন্ট খেলেছে মুশফিকুর রহিম – মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা।


আগামী মাসের শুরুতেই দেশে ফিরছেন সাকিব, ১৫ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি লিগ দিয়েই ক্রিকেটে নবযাত্রা শুরু করবেন তিনি। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা সাকিবই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ, তাকে ঘিরেই বুদ থাকবে বেশ কয়েকটা দিন। বিদেশি হীন এই টুর্নামেন্টের যে সবচেয়ে বড় তারকাও সাকিব নিজেই, মুকুট হীন রাজার এর চেয়ে ভালো প্রত্যাবর্তন আর কি-ই বা হতে পারতো।


সূত্রঃ ডেইলি স্পোর্টস বিডি

Googleplus Pint
Akash Khan
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)