ক্রীড়াঙ্গনে নেই কোনো খেলাধুলা, টিভি সম্প্রচার খাতে হাহাকার

খেলাধুলার বিবিধ 18 Mar 2020 at 2:07pm 465
Googleplus Pint
ক্রীড়াঙ্গনে নেই কোনো খেলাধুলা, টিভি সম্প্রচার খাতে হাহাকার

প্রকৃতির কাছে মানুষ অসহায়। এটা এড়িয়ে যাওয়ার কোনো উপায় নেই। বিশ্বের নতুন মহামারী করোনাভাইরাস যেনো সেটা আবার নতুনভাবে প্রমাণ করলো। এর কারণে থমকে গেছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। কোথাও কোনো খেলাধুলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। এমতাবস্থায় একেবারেই অলস সময় পার করছে বিশ্বের ক্রীড়াভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেলগুলো।

বিশ্বের প্রতিটা টেলিভিশনের বড় আয় আসে বিজ্ঞাপন থেকে। আর সরাসরি সম্প্রচার হলো ক্রীড়াভিত্তিক চ্যানেলগুলোর মূল আয়। বর্তমান খেলাধুলা বন্ধ থাকায় টিভি চ্যানেলগুলোতে ব্যাপক বাজে প্রভাব পড়েছে। ইনসাইড স্পোর্টস

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় বাস্কেটবল লিগ এনবিএ ও এনসিএএ স্থগিত করায় সম্প্রচারও বন্ধ রয়েছে। দ্বিতীয় লিগ এনসিএএ বন্ধ করায় দেশটির টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানি এটিএন্ডটি এবং টেলিভিশন সিবিএসের আর্থিক ক্ষতি দাঁড়িয়েছে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার। একই সঙ্গে এনবি বন্ধ করায় ক্ষতি হয়েছে ১২০ কোটি মার্কিন ডলার। মোটলে ফুল

উপমহাদেশের সবগুলো ক্রীড়া ইভেন্ট সম্প্রচার করে কয়েকটি কোম্পানি। তার মধ্যে স্টার স্পোর্টস, সনি পিকচার মিডিয়া টেন স্পোর্টস এবং ডি স্পোর্টস উল্লেখযোগ্য। সবগুলোয় এখন সম্প্রচার ছেড়ে লোকসানের হিসাব কষতে ব্যস্ত আছে।

চলতি মাসে আইপিএল, ভারত-আফ্রিকা, ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কা, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ও মুজিববর্ষের দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ সম্প্রচার হওয়ার চুক্তি ছিলো। সেই সঙ্গে পাকিস্তানের পিএসএল টুর্নামেন্টও চলমান ছিলো। কিন্তু কিছুই মাঠে গড়ায়নি। ফলে চুক্তির কোনো টাকায় কোম্পানিগুলো পায়নি। সরাসরি খেলা না দেখানোয় কোনো বিজ্ঞাপনও পাচ্ছে না টিভিগুলো।

আয় না থাকলেও ব্যয় বসে নেই কোম্পানিগুলোর। হাইলাইটস ও প্রোমো দেখিয়েই সময় পার করছে তারা। এই ব্যয়ভার বহন করতে প্রচুর টাকা গচ্চা দিতে হচ্ছে স্পোর্টস চ্যানেলগুলোর। এই সংকট মোকাবেলা করে কোম্পানিগুলোর টিকে থাকাই বড় চ্যালেঞ্জ।

সূত্রঃ আমাদের সময়

Googleplus Pint
Akash Khan
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)