সাকিবে মুগ্ধ হয়ে যা বললেন জহির খান-ভোগলে

ক্রিকেট দুনিয়া 18 Jun 2019 at 9:47am 1,494
Googleplus Pint
সাকিবে মুগ্ধ হয়ে যা বললেন জহির খান-ভোগলে
চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় তারকার নাম সাকিব আল হাসান। তিনি ব্যাট হাতে ক্রমাগত রান তুলে যাচ্ছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে গতকালকের ম্যাচের আগে শেষ তিন ম্যাচে তিনি করেছেন ১২১। আবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও করেছেন ১২১ রান। অপরদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৬৪ ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে করেছেন ৭৫ রান।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কতদূর যাবে তাও আসলে নির্ভর করছে এই সাকিব আল হাসানের ওপরই। সাবেক ভারতীয় পেসার জহির খান মনে করেন বিশ্বকাপে সাকিবকে তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে পাঠানো বাংলাদেশের জন্য খুবই কার্যকর একটা সিদ্ধান্ত হিসেবে প্রমাণ হয়েছে।

ক্রিকেট বিষয়ক গণমাধ্যম ক্রিকবাজের এক অনুষ্ঠানে এসে জহির খান বলেন, ‘একটা কৌশল যেটা বাংলাদেশ এবারের বিশ্বকাপে খুব ভালো ভাবে কাজে লাগাতে পেরেছে তা হলো সাকিবকে ওপরের দিকে খেলার সুযোগ করে দিয়েছে। এটা খুব ভালো একটা সিদ্ধান্ত ছিল। এটাকে খুব কার্যকর সিদ্ধান্ত বলা যায়।’

জহির খানের মতে সাকিব এখন যত বেশি না অলরাউন্ডার তার চেয়ে বেশি একজন ব্যাটসম্যান। তিনি বলেন, ‘এতদিন সাকিবকে বাংলাদেশ একজন অলরাউন্ডারের দৃষ্টিতে দেখে এসেছে। এখন এসে দেখা গেল ও যত বেশি না একজন অলরাউন্ডার তার চেয়ে বড় মাপের ব্যাটসম্যান। ও হচ্ছে এমন একজন ব্যাটসম্যান যে একই সাথে ভালো বোলিংও করতে পারে।’

স্টুডিওতে থাকা আরেক ভারতীয় ক্রিকেট বিশ্লেষক হার্ষা ভোগলেও জহিরের সাথে সুর মেলালেন। একই সাথে সাকিবের বোলিং দক্ষতারও প্রশংসা করলেন। তিনি বলেন, ‘আপনি ওর স্কোরগুলো কেবল দেখেন – ১২১, ১২১, ৬৪ ও ৭৫।

এই স্কোরগুলো দেখে মনে হতে পারে ও মূলত একজন ব্যাটসম্যান, যে কি না বোলিং করতে পারে। তবে, ব্যাপার হল ও রোজ আপনার জন্য ১০টা ওভার বোলিং করে দিবে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওর বোলিং ফিগার দেখলে সাদামাটা মনে হতে পারে।

কিন্তু ও আসলে শুরুটা ভালোই করেছিল। কিন্তু শেষে একটু রান দিয়ে ফেলে। এর বাইরে ৪৭ রানে দুই উইকেট, ৫০ রানে এক উইকেট —সবগুলো পারফরম্যান্সই দারুণ ছিল।’

হার্ষা ভোগলে মনে করেন সাকিবের বোলার পরিচয়ের চেয়ে এখন ব্যাটসম্যান পরিচয়টাই বেশি মুখ্য হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, ‘ও মূলত ব্যাটসম্যান। তবে, আবারো বলতে হবে যে ওর বোলিংটাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ও রোজ ১০ ওভার বল করে। ও একজন পরিপূর্ণ ১০ ওভারের বোলার।’

হার্ষা ভোগলে মনে করেন সাইফউদ্দিন কিংবা মোসাদ্দেকের মতো বোলাররা আছেন বলেই বাংলাদেশের ছয়জন বোলার দরকার। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের ছয়জন বোলার দরকার। কারণ, হয়তো মাশরাফি রোজ ১০ ওভার বোলিং করবেন না।

মোসাদ্দেক বা সাইফউদ্দিনও করবে না। তাই সাকিবকে ১০ ওভার করতে হবে। ১০টি করে ওভার লাগবে মুস্তাফিজ আর মেহেদী হাসান মিরাজের কাছ থেকে।’

জানিয়ে রাখা ভালো, ওয়ানডে অলরাউন্ডারদের র‌্যাংকিংয়ে সাকিব আছেন সবার ওপরে। ব্যাটসম্যানদের র‌্যাংকিংয়ে তিনি আছেন ৩৪-এ। আর বোলারদের মধ্যে তার অবস্থান ১৯।

সূত্রঃ জুমবাংলা
Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)