দিল্লীর কাছে ম্যাচ হারার কারণ হিসেবে যাকে দোষলেন সাকিব

ক্রিকেট দুনিয়া 15th Apr 19 at 12:30pm 645
Googleplus Pint
দিল্লীর কাছে ম্যাচ হারার কারণ হিসেবে যাকে দোষলেন সাকিব

মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় আবারও ম্যাচ হারলো সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আইপিএলে রবিবার সন্ধ্যার ম্যাচে দিল্লী ক্যাপিটালসের কাছে ৩৯ রানে হেরেছে দলটি।১৫৬ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এদিনেও ভালো সূচনা করেন হায়দরাবাদ দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার এবং জনি বেয়ারস্টো।

উদ্বোধনী জুটিতে দুজনে তোলেন ৭২ রান। ৩১ বলে পাঁচটি চার ও একটি ছক্কায় ৪১ রান করে ফিরে যান দলের ইংলিশ উইকেটরক্ষক বেয়ারস্টো। এরপরে নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারিয়েছে হায়দরাবাদ।

সাকিব আল হাসান বিহীন মিডল অর্ডার এদিনেও তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়ে। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ৩ ও রিকি ভুই ৭ রানে ফিরে যাওয়ার পর প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন ওয়ার্নারও।৪৭ বলে ৫১ রান করে ফিরেন তিনি।

এরপরে দলীয় ১১০ রানের মধ্যে বিজয় শঙ্কর (১), দীপক হুদা (৩) ও রশিদ খানও (০) ফিরে যান। শেষমেশ ১১৬ রানেই অলআউট হয় হায়দরাবাদ। ২২ রান খরচায় চার উইকেট নেন ক্যাগিসো রাবাদা।

এর আগে টসে হেরে আগে ব্যাট করা দিল্লী ক্যাপিটালস এদিনে ২০ রানেই হারিয়েছে দুই ওপেনারের উইকেট। পৃথ্বী শ (৪) ও শিখর ধাওয়ান (৭) দ্রুত ফিরলেও দ্রুত ফিরলেও হাল ধরেন কলিন মুনরো এবং শ্রেয়াশ আইয়ার।

২৪ বলে চারটি চার ও তিনটি ছক্কায় ৪০ রান করে ফিরে যান মুনরো। এরপরে রিশভ পান্তের সঙ্গে দলের রান বাড়াতে থাকেন অধিনায়ক শ্রেয়াশ। ৪০ বলে ৪৫ রান করে ভুবনেশ্বর কুমারের বলে ফিরে যান তিনি।

পান্তের ২৩ ও অক্ষর প্যাটেলের ১৪* রানের সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে সাত উইকেটে ১৫৫ রান করে দিল্লী। হায়দ্রাবাদের হয়ে তিনটি উইকেট নেন খলিল আহমেদ।এই মুহূর্তে সাত ম্যাচে তিন জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার ষষ্ঠ স্থানে আছে হায়দরাবাদ। অপরদিকে আট ম্যাচে পাঁচ জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয়তে পৌঁছে গিয়েছে দিল্লী।

তবে এদিন সাকিব আল হাসান একাদশে না থাকলেও ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি। তবে সাকিব বলেন বিদেশি ক্রিকেটার সানরাইজ হায়দরাবাদ একাদশে খেলছেন তারা বিশ্বমানের।তবে মুলত মিডল অর্ডারের দুর্বলতার কারণেই ম্যাচটি হেরে যাই আমরা।

এখানে সুযোগ পাওয়া অনেক কঠিন। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসে সাকিব আল হাসান বলেন, একাদশে না থাকাটা অবশ্যই হতাশার, কিন্তু পরিস্থিতিও আপনাকে বুঝতে হবে। আমাকে বসিয়ে রাখা টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য খুব কঠিন।

না খেললেও আমাকে ফিট আর প্রস্তুত থাকতে হবে। তাছাড়া বিশ্বকাপও আসছে। ফলে অনুপ্রেরণার কোনো কমতি নেই। আর আমার সুযোগ যখন আসবে, আমিও দুই হাত ভরে তা নেব। আমি অনুশীলনও আগের চেয়ে অনেক বেশি করছি।’

সূত্রঃ জুমবাংলা

Googleplus Pint
Akash Khan
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)