৪৬ ছক্কার ম্যাচে ম্লান হলো গেইলের ১৬২ রানের ইনিংস

ক্রিকেট দুনিয়া 28 Feb 2019 at 2:02pm 405
Googleplus Pint
৪৬ ছক্কার ম্যাচে ম্লান হলো গেইলের ১৬২ রানের ইনিংস
ঘরের মাটিতে অতিথীদের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে কি নাস্তানাবুদটানা করেছে গেইল-হেটমায়াররা! ওই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের দখলে থাকা ২৩ ছক্কার রেকর্ডটি কেড়ে নেয় উইন্ডিজ। এক সপ্তাহও এই রেকর্ডটি ধরে রাখতে পারলো না ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ঠিক এক সপ্তাহ শেষে ক্যারিবীয়নরা হারালো তাদের সেই সিংহাসন। গ্রানাডায় বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছ থেকে ইনিংসে ২৪ ছক্কা হাঁকিয়ে সে রেকর্ড কেড়ে নিল ইংল্যান্ড।

এর আগে এক ইনিংসে ইংলিশদের সর্বোচ্চ ছক্কা ছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। গত বছরই নটিংহ্যামের ওই ম্যাচে ২১ ছক্কা হাঁকিয়েছিল ইংল্যান্ড। আর দুই ছক্কা হলেই ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ ২২ ছক্কার রেকর্ড টপকে যেত ইংল্যান্ড।

গত রাতের ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ক্যারিবীয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। জস বাটলারের ৭৭ বলে ১২ ছক্কায় ১৫০ রানের সুবাদে ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে ৪১৮ রানের পাহাড় গড়ে তোলে। ৮৮ বলে ১০৩ রানে ঝোড়ো ইনিংস খেলেন অধিনায়ক ওয়েন মর্গান। ৭৩ বলে ৮২ রান করেন আরেক মারকুটে ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স হেলস।২৩ বলে ৫৬ রানের ইনিংস খেলেন ওপেনার জনি বেয়ারস্টো।

৪১৯ রান! সে তো দূরের বাতিঘর। কিন্তু যে দলে গেইল নামক ছক্কামেশিন আছেন সে দলের কাছে এই ৪১৯ রানও যেন মামুলি ব্যাপার। শুরুটা তেমনই হয়েছিল স্বাগতিকদের। ইংলিশদের ইটের জবাব পাটকেল দিয়েই দিচ্ছিল গেইল।

স্টোকসের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে ৯৭ বলে ১৬২ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংস খেলেন এখনো ফুরিয়ে না যাওয়া এই জ্যামাইকান। ১৬২ রানের এই ইনিংসে ১৪টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন, চার মেরেছেন ১১টি। অঙ্ক কষলে ১২৮ রানই নিয়েছেন চার আর ছয় মেরে, ভাবা যায়!

এই ম্যাচে দুই দল মিলে যখন এক ম্যাচে সর্বোচ্চ ৪৬টি ছক্কার রেকর্ড গড়ে ফেলেছে। তখন, উইন্ডিজদের আরও কেউ একজন সেঞ্চুরি কিংবা বড় দুটা ইনিংস হলেই এই ম্যাচ হয়তো তারাই জিতে যেত; এমনটাই মনে হচ্ছিল। ইংলিশদের ইনিংসে যেমন জস বাটলারের সঙ্গে হেলস, মর্গানরা করেছেন।

গেইল আউট হলেও ব্রাভো-ব্রাথওয়েট-নার্সরা আশা বাঁচিয়ে রেখেছিল। শেষদিকে টেল এন্ডারদের ব্যর্থতায় ৩৮৯ রানে উইন্ডিজদের ইনিংস শেষ হয়ে যায় ৪৮ ওভারেই।আর তাতে গেইলের অতি মাবীয় ইনিংসটি হয় ম্লান। -গো নিউজ
Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)