লজ্জায় মুখ লাল হয় কেন?

জানা অজানা 16th Sep 18 at 4:59pm 861
Googleplus Pint
লজ্জায় মুখ লাল হয় কেন?
মানুষের অতি পরিচিত একটা আবেগ হলো লজ্জা। তিরস্কারে যেমন লজ্জা পায় মানুষ তেমনি প্রশংসাতেও। পছন্দের মানুষ প্রশংসা করলো আর কেউ লজ্জা পেলো। এতই লজ্জা পেলো যে লজ্জায় লাল হয়ে
গেলো। কিন্তু কখনো কি ভেবেছেন লজ্জার রঙ লাল কেন? মানে, লজ্জা পেলে মানুষ অন্য কোনো রঙের না হয়ে কেবল লালই হয় কেন?

এর পেছনে রয়েছে বিজ্ঞান। মানুষের শরীরে নানা ধরনের গ্রন্থি রয়েছে, যা থেকে পরিমাণ মতো হরমোন বা গ্রন্থিরস বেরোনোর ফলে শরীরের বিভিন্ন অংশগুলো ঠিকমত কাজ করে। এমনই এক হরমোনের নাম অ্যাড্রিনালিন।
লজ্জা বা রাগের সময় শরীরে অ্যাডরিনালিন হরমোনের নিঃসরণ বেড়ে যায়। অ্যাড্রিনালিন হৃদপিণ্ডের গতি, রক্তপ্রবাহের গতি এবং রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়।

মজার ব্যাপার হলো, অ্যাড্রিনালিন শরীরের সব জায়গার রক্তনালীকে সংকুচিত করে, কিন্তু কেবল মুখের চামড়ার নীচে থাকা
রক্তজালিকাগুলোর উপর এর কোনো প্রভাব নেই। অন্য
রক্তনালীগুলো সংকুচিত হবার সঙ্গে সঙ্গে মুখে রক্তজালিকা গুলোর রক্তপ্রবাহ ও রক্তচাপ বেড়ে যায়। অর্থাৎ মুখের রক্তজালিকাগুলো গাল, কপাল, থুতনি, ঘাড় এবং কানের কাছে ছড়িয়ে থাকায় এসব জায়গায় রক্ত চলাচল একটু বেশীই বেড়ে যায়।
রক্ত চলাচল বেড়ে যাওয়ার কারণে রক্তের চাপও বেড়ে যায়। আর এ কারণেই মুখের রঙ লাল বা গোলাপি দেখায়।

বড়দের তুলনায় ছোটদের এবং ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের তুলনামূলক আবেগ বেশী থাকে।
তুলনামূলকভাবে ছোটরা এবং মেয়েরা লজ্জা বা রাগে বেশী লাল হয়। লজ্জায় লাল হয়ে যাওয়ার জন্য কিন্তু মানুষ নয়, বরং আমাদের রক্ত আর রক্তের হরমোন দায়ী। অনেকে আবার ভয় পেলেও লাল হয়ে যায়। এরও কারণ সেই একই হরমোন।
Googleplus Pint
Jafar IqBal
Administrator
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)