রুবেল থেকে সাব্বির, দোষটা আসলে কার?

ক্রিকেট দুনিয়া 3rd Sep 18 at 4:40pm 1,040
Googleplus Pint
রুবেল থেকে সাব্বির, দোষটা আসলে কার?
২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকে বাংলাদেশ দল পারফর্মেন্সের দিক থেকে অনেক উত্থান পতনের সম্মুখীন হয়েছে। দলের ক্রিকেটারদের ফর্ম উঠানামা করলেও একই ধারায় আছে তাদের মাঠের বাইরের বিতর্কিত কার্যকলাপ।

বিভিন্ন অভিযোগে গত তিন বছরে জেলে গিয়েছেন তিন বাংলাদেশী ক্রিকেটার। এছাড়া আরও পাঁচজন ক্রিকেটার যারা কিনা অভিযুক্ত হয়েছেন বিভিন্ন নারী সংক্রান্ত ঘটনা নিয়ে।

এই তালিকার সবচেয়ে নতুন সংযোজন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তাঁর বিরুদ্ধে সম্প্রতি যৌতূকের অভিযোগ করেছিলেন সৈকতের স্ত্রী। এদিকে ফেইসবুকে সমর্থকদের গালি দেয়ার অপরাধে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন সাব্বির রহমান।

সবচেয়ে লক্ষণীয় বিষয় হল এমন কার্যকলাপ করা কেউই দলে ফিরে আসতে পারেননি রুবেল হোসেন ব্যতিত। কিন্তু ২০১৫ বিশ্বকাপের আগে নারী কেলেঙ্কারি করেও বিশ্বকাপে খেলার টিকেট পেয়েছিলেন রুবেল।

তবে রুবেলের ব্যাপারে বোর্ডের এমন হস্তক্ষেপ নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। এ নিয়ে বোর্ড সভাপতির বক্তব্য,

'এ বিষয়ে আমরা একজন ছাড়া কাউকেই ছাড় দেইনি। আমাদের রুবেলকে বিশ্বকাপের কথা ভেবে ছাড় দিতে হয়েছে।'

যিনি এই প্রথাটি শুরু করেছিলেন তিনিই এখন মাশরাফি-সাকিব-তামিম-মুশফিক-মাহমুদুল্লাহদের মতো সিনিয়র ক্রিকেটার। বাকি কেউই তা হতে পারে নি।

তবে এই পাঁচ ক্রিকেটারকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের মেরুদণ্ড বলা হয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের দৈনন্দিন এসব কেলেঙ্কারির মধ্যে এরা কেউই এখনও নিজেদের যুক্ত করেননি।

এদিকে ক্রিকেটারদের এসব কার্যকলাপে তিক্ত হয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সম্প্রতি ক্রিকেটারদের জন্য মনস্তাত্ত্বিক পরামর্শক আনারও ঘোষণা দিয়েছেন। পাশাপাশি এ নিয়ে একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

আর এই কাজগুলার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদে পাপন অসহায়ত্ব প্রকাশ করে বলেছেন, 'আমরা কি করতে পারি'। তবে এ নিয়ে বোর্ডের কাজ চলার কথা জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

তবে রুবেলের ক্ষেত্রে বিচারটি যথাযথ হয়েছে কিনা প্রশ্নটি এখনও থেকেই যাচ্ছে। রুবেলের পরই ক্রিকেটারদের এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা মাথানাড়া দিয়ে উঠেছে। বিসিবি এমন ভুল ভবিষ্যতে করার ক্ষেত্রে এখন অবশ্যই দুইবার ভাববে।

এদিকে ২০১৯ বিশ্বকাপ শুরু হবে মে মাস থেকে। আর সাব্বিরের ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে মার্চ মাসে। সুতরাং সামনের বিশ্বকাপে সাব্বিরের খেলার সম্ভাবনা থাকে। তবে তা নির্ভর করবে নির্বাচক এবং দলের অভিজ্ঞ সিনিয়র ক্রিকেটারদের উপর।

সূত্রঃ অনলাইন
Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)