বাজারের সেরা পাঁচ গ্যাজেট

গ্যাজেট রিভিউ August 9, 2018 1,633
বাজারের সেরা পাঁচ গ্যাজেট

বাজারে প্রতিদিনই নতুন নতুন গ্যাজেট আসছে। এসব গ্যাজেটের ভিড়ে সেরা গ্যাজেটটি খুঁজে নেয়া কঠিন। জেনে নিন জুলাই মাসে বাজারে আসা সেরা পাঁচ গ্যাজেট সম্পর্কে। এগুলোর মধ্যে কোনো একটি গ্যাজেট আপনার মনে ধরতেই পারে!


অ্যাপল ম্যাকবুক প্রো

বহুদিন ধরেই অ্যাপলের প্রিমিয়াম ল্যাপটপ ম্যাকবুক প্রোর বিরুদ্ধে পুরোনো জেনারেশনের প্রসেসর ব্যবহারের অভিযোগ উঠছিল। জুলাই মাসে লেটেস্ট জেনারেশনের ইননেটল কোর আই ফাইভ, জোর আই সেভেন এবং কোর আই নাইন প্রসেসর ব্যবহার করে নতুন ম্যাকবুক প্রো অবমুক্ত করেছে অ্যাপল। ১৩ ইঞ্চি ও ১৫ ইঞ্চি ডিসপ্লেতে এই ল্যাপটপগুলো বাজারে এসেছে। এতে রয়েছে ৩২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং ৪ টেরাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ।


গিয়ার আইকনএক্স ইয়ারবাড

৪ জিবি বিল্টইন মেমোরিসহ বাজারে এসেছে স্যামসাং গিয়ার আইকনএক্স ইয়াবার্ড। এই ইয়ারবাডে গান শুনতে অন্য কোন ডিভাইসের সঙ্গে কানেক্ট করতে হবে না। ইয়ারবাডে গান স্টোর করে সেই গান শোনা যাবে। কম্পিউটার ও মোবাইল থেকে তারবিহীন প্রযুক্তিতে গান ট্রান্সফার করা যাবে এই ডিভাইসে। এতে রয়েছে পাঁচটি আলাদা প্রিসেট ইকুইলাইজার।


মিউজিক স্মার্টওয়াচ

২৪ ঘণ্টা হার্টবিট মনিটর, অ্যাডভান্স রানিং ডাইনামিক্স এবং পারফর্মেন্স মনিটারিং টুল সহ সম্প্রতি বাজারে এসেছে গার্মিন ফোররানার ৬৪৫ মিউজিক স্মার্টওয়াচ। এই স্মার্টওয়াচের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট মিউজিক প্লে ব্যাক এর ক্ষমতা। যেকোন ব্লু টুথ হেডসেট বা স্পিকার এই স্মার্টওয়াচে কানেক্ট করে সরাসরি গান চালানো যাবে। মিউজিক স্মার্টওয়াচটিতে প্রায় ৫০০ গান স্টোর করে রাখা যাবে।


ফিও এম সেভেন মিউজিক প্লেয়ার

ফুল অ্যালুমিনিয়াম বডি আর সামনে গ্লাস ডিজাইনসহ বাজারে এসেছে ফিও এম সেভেন মিউজিক প্লেয়ার। হাই এন্ড সাউন্ড কোয়ালিটির জন্য মিউজিক লাভারদের অন্যতম পছন্দের ব্র্যান্ড ফিও। কালো, রূপালি আর লাল রঙে এটি পাওয়া যাবে। এতে রয়েছে ৩.২ ইঞ্চির ডিসপ্লে। এর ২ জিবি বিল্টইন মেমোরিতে গান স্টোর করে রাখা যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে মেমোরি ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেয়া যাবে। ব্যাকআপের জন্য ডিভাইসটিতে রয়েছে ১১৮০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি। এই মিউজিক প্লেয়ারে ২০ ঘন্টা একটানা গান শোনা যাবে।


ডাইসন পিওর কুল

সম্প্রতি নতুন এই এয়ার পিউরিফায়ার অবমুক্ত হয়েছে। ডাইসন পিওয় কুল নামের এই স্মার্ট ডিভাইসটির স্মার্ট ডিটেকশান টেকনোলজি ঘরের দূষিত পদার্থগুলোকে শনাক্ত করবে। এতে একটি ৩৬০ ডিগ্রি সিলড ফিল্টার সিস্টেম রয়েছে। টাওয়ার ও ডেস্ক ডিজাইনে পাওয়া যাবে এটি।


(ঢাকাটাইমস/৯আগস্ট/এজেড)