যে কারণে গরমে ঠাণ্ডা পানি খাওয়া উচিত নয়

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 22nd Apr 18 at 9:07pm 791
Googleplus Pint
যে কারণে গরমে ঠাণ্ডা পানি খাওয়া উচিত নয়
গরমকালে ফ্রিজ খুলে ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার অভ্যাস অনেকেরই আছে। গুমোট গরমে অনেকেই স্বস্তি পেতে ঠাণ্ডা পানি খান।এর ফলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। বিশেষ করে রাস্তা থেকে ঘরে ফিরেই যদি ঠাণ্ডা পানিখান, তা হলে শরীর খারাপ হওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি থাকে। জেনে নিন কেন গরমে ঠান্ডা পানি খাওয়া উচিত নয়-

১। যতই গরম পড়ুন না কেন আয়ুর্বেদে ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার ব্যাপারে কড়া নিষেধ রয়েছে। এর ফলে শরীরের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতায় ব্যাঘাত ঘটতে পারে। বিশেষ করে খাবারের সঙ্গে বরফ ঠাণ্ডা পানি বা আইস ড্রিঙ্ক খেলে তা পরিপাকের কাজে বাধা দেয় ও শরীর খারাপ হয়।

২। কিছু গবেষকরা জানিয়েছেন, ঠাণ্ডা পানি হার্ট রেট কমিয়ে দিতে পারে। বরফ ঠান্ডা পানি দশম কার্নিয়াল নার্ভকে উত্তেজিত করে। এই নার্ভ হার্ট রেট কমিয়ে দেয়।

৩। গরম কালে বরফ ঠান্ডা পানি খেলে ঠাণ্ডা লেগে গলা ব্যথা, নাক বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। ঠাণ্ডা পানি শ্বাসনালীতে মিউকাস জমতে সাহায্য করে। ফলে শ্বাসনালীতে প্রদাহ হয়।

৪। খাওয়ার ঠিক পরেই ঠাণ্ডা পানি খেলে তা খাবারে থাকে ফ্যাট জমিয়ে দিতে পারে। ফলে ফ্যাট হজম হতে বাধা পায় ও শরীরে মেদ হিসেবে জমা হয়। তবে শুধু ঠাণ্ডা পানি নয়, খাওয়ার ঠিক পরই পানি খাওয়া উচিত নয়। অন্তত ৩০ মিনিট পর পানি খান।

৫। ওয়ার্কআউট করার পর খুব গরম লাগে। তখন অনেকেই ঠাণ্ডা পানি খেতে চান। কিন্তু ওয়ার্কআউটের পর ঠাণ্ডা পানি খাওয়া উচিত নয়। জিম এক্সপার্টরা ওয়ার্কআউটের পর গরম পানি খেতে বলেন। কারণ এক্সারসাইজের পর শরীর গরম হয়ে যায়। এই সময় বরফ ঠাণ্ডা পানি খেলে শরীরের তাপমাত্রার সঙ্গে তারতম্যের জন্য পৌষ্টিকনালীতে প্রভাব ফেলে। উপরন্তু, শরীর কিন্তু ঠাণ্ডা পানি শোষণ করতে পারে না। পেটে কষ্টদায়ক যন্ত্রণাও হতে পারে।
Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 8 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)