অস্ট্রেলিয়ার এমন কাণ্ডে এবার যা বললেন মাশরাফি-রুবেল-তাসকিন!

ক্রিকেট দুনিয়া 26th Mar 18 at 7:48pm 1,481
Googleplus Pint
অস্ট্রেলিয়ার এমন কাণ্ডে এবার যা বললেন মাশরাফি-রুবেল-তাসকিন!
বল বিকৃতি (বল টেম্পারিং) হল বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম একটি জঘন্য ঘটনা। আর এই জঘন্য কাজে ফেঁসে গেলেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও তরুণ পেসার ক্যামেরন ব্যানক্রফট। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে এমন কাণ্ড করে বসেন অস্ট্রেলিয়ার তরুণ পেসার ক্যামেরন ব্যানক্রফট। আর তার এমন ঘটনার জন্য তার পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ড ক্ষোভ প্রকাশ করে অধিনায়ক স্মিথের উপরও।

আর এমন জঘন্য ঘটনার জন্য শাস্তি হিসেবে স্মিথকে এক টেস্ট ম্যাচে নিষদ্ধ হবার পাশাপাশি ম্যাচ ফির একশো শতাংশ কেটে নেয় আইসিসি। অন্যদিকে ব্যানক্রফটকে শুধুই ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ কেটে নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এমনকি তাদের নামের পাশে ৩ ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ করে দেয়া হয়।

অস্ট্রেলিয়া দলের এমন কাণ্ড দেখে অবাক হয়েছেন বাংলাদেশের পেসাররা। বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার দলকে আগে কখনো করতে দেখা যায়নি, সেটি বলা অবশ্য কঠিন। এবার হয়তো ধরা পড়েছে বলে অনেক হইচই হচ্ছে। আমাদের বোলাররা এগুলো কখনো করে না। যেহেতু এটা আমরা কেউ করি না, আলাদাভাবে এটা নিয়ে ভাবার কিছু নেই। ইতিবাচক দিক এটিই, আমাদের খেলোয়াড়দের এ ধরনের কিছু করার মানসিকতাই নেই।’

এ প্রসঙ্গে আরেক পেসার রুবেল হোসেন বলেন, ‘রিভার্স সুইংয়ে সহজাত কিছু বিষয় থাকে। সাইড আর্ম অ্যাকশনের কারণে অনেকের রিভার্স সুইং ভালো হয়। অনেক সময় বল একটু ঘষলেই রিভার্স সুইং হয়। আবার অনেকে জোর করে রিভার্স সুইং করাতে চায়। যেটা অস্ট্রেলিয়া করেছে। ওর বল অন্যভাবে ঘষার চেষ্টা করেছে।

বল বিকৃত করার চেষ্টা করেছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এগুলো করে কখনোই ভালো কিছু হয় না। এখন ওরা তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে। এটা দেশের বদনাম, খেলোয়াড়ের বদনাম। ওদের এটা করতে দেখে খুবই অবাক হয়েছি। আমরা এটা নিয়ে সব সময়ই সচেতন। কখনো এটা করিনি, করবও না আশা করি।’

এ প্রসঙ্গে তাসকিন বলেন, ‘বল যখন একদিকে খসখসে হয়, তখন সেটা রিভার্স করে। নখ মেরে, সিরিশ কাগজ দিয়ে বল বিকৃত করে বল রিভার্স করালে ব্যাটসম্যানের জন্য সেটা খেলা অনেক কঠিন। আন্তর্জাতিক ম্যাচে অনেক ক্যামেরার মধ্যে এটা করা কঠিন। এটা ঘরোয়া ক্রিকেটেও করা উচিত নয়। যেহেতু আন্তর্জাতিক ম্যাচে ধরা খাওয়া লাগে।

অস্ট্রেলিয়া দলের কাছে এটা আশা করা যায় না। দুঃখজনক। ক্রিকেটে তারা শীর্ষ দলের একটা। অনেকে তাদের অনুসরণ করে। এটা ক্রিকেট চেতনার সঙ্গে যায় না। এ থেকে সবাইকেই শিক্ষা নিতে হবে। দুই নম্বরি করে দলকে সহায়তা করার মধ্যে গৌরবের কিছু নেই। ক্রিকেট হচ্ছে ভদ্রলোকের খেলা, এখানে অসৎ উপায়ে কিছু করা ঠিক নয়।’

সূত্রঃ অনলাইন
Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 15 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)