বিতর্কিত পেনাল্টিতে পয়েন্ট হারাল বার্সা

ফুটবল দুনিয়া 2nd Mar 18 at 11:29am 1,150
Googleplus Pint
বিতর্কিত পেনাল্টিতে পয়েন্ট হারাল বার্সা
পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলোনার অবস্থান শীর্ষে। চলতি মৌসুমে তারা একটি ম্যাচেও হারেনি। অন্যদিকে লাস পালমাসের অবস্থান ১৮তম স্থানে। ২৬ ম্যাচে মাঠে নেমে তাদের জয় মাত্র ৫টিতে। শক্তিমত্তায় বার্সেলোনার চেয়ে ঢের পিছিয়ে তারা। সেই লাস পালমাসই কিনা ঘরের মাঠে রুখে দিল বার্সেলোনাকে! সেটা অবশ্য বিতর্কিত পেনাল্টিতে।

প্রথমার্ধে লিওনেল মেসি গোল করে বার্সাকে এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে বিতর্কিত পেনাল্টি থেকে সমতায় ফেরে পালমাস। সেই সমতা বাকি সময়ে আর ভাঙেনি। ফলে মূল্যবান ২ পয়েন্ট হারিয়ে মাঠ ছাড়ে কাতালানরা। ১৬ বছর পর বার্সেলোনার কাছ থেকে ১ পয়েন্ট নিতে পারল লাস পালমাস। এর আগে ২০০২ সালে সর্বশেষ বার্সার বিপক্ষে পয়েন্ট পেয়েছিল তারা।

লাস পালমাসের বিপক্ষে বৃহস্পতিবার রাতে ম্যাচের ২০ মিনিটে ডি বক্সের সামনে ফ্রি কিক পায় বার্সেলোনা। ফ্রি কিক থেকে অসাধারণ এক গোল করে দলকে এগিয়ে নেন লিওনেল মেসি (০-১)। তার গোলে এগিয়ে থেকেই প্রথমার্ধের খেলা শেষ করে ভালভার্দের শিষ্যরা।

বিরতির পর ম্যাচের ৪৭ মিনিটে পেনাল্টি বক্সের মধ্যে হ্যান্ডবলের আবেদন জানায় লাস পালমাসের খেলোয়াড়রা। রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। ভিডিওতে দেখা যায় গোললাইনের সামনে থেকে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে বার্সেলোনার লুকাস দিগনির কব্জিতে লাগে। যদিও বল কব্জিতে লাগার বিষয়টি পরিস্কার নয়, তবুও লাস পালমাসকে পেনাল্টি উপহার দেন রেফারি। পেনাল্টি থেকে জনাথান কালেরি গোল করে সমতায় ফেরান দলকে (১-১)।

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারির পর এই প্রথম পেনাল্টি হজম করল বার্সা। তাও ৭৯ ম্যাচ পর। বাকি সময়ে অবশ্য আর কোনো গোল হয়নি। ফলে ১-১ গোলের সমতা নিয়েই মাঠ ছাড়ে বার্সা ও লাস পালমাস।

এই ড্রয়ের ফলে ২৬ ম্যাচের ৫টিতে জিতে, ৫টিতে ড্র করে ও ১৬টিতে হেরে ২০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ১৮তম স্থানে রয়েছে লাস পালমাস। সমান ম্যাচ থেকে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে বার্সা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে তাদের পয়েন্ট ব্যবধান মাত্র ৫। রোববার রাতে মুখোমুখি হবে বার্সা ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এই ম্যাচে অ্যাটলেটিকো জয় পেলে শিরোপা জয়ের দৌড়ে দারুণভাবে টিকে থাকবে মাদ্রিদের ক্লাবটি।

তথ্যসূত্রঃ অনলাইন
Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 88 - Rating 6 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)