৩০০ বছরের আত্মার সঙ্গে বিয়ে!

ভয়ানক অন্যরকম খবর January 16, 2018 2,608
৩০০ বছরের আত্মার সঙ্গে বিয়ে!

বিয়ের সাজে সাদা পোশাকে আমান্দা টেগকে দেখতে পরীর মতোই লাগছিল। পরিবার সঙ্গে নিয়ে বিয়ের বিশেষ দিনটি তিনি চমৎকারভাবেই উদযাপন করেছেন। কিন্তু এ বিয়ে কোনো সাধারণ বিয়ে নয়। এমনকি সাধারণ মানুষের কাছেও এ বিয়ে নিয়ে লেগে যাবে বিশাল খটকা!


আমান্দা টেগ (৪৫) বিয়ে করলেন ১৭০০-এর দশকে মারা যাওয়া জ্যাক নামের এক হাইতিয়ান দস্যুকে! অর্থ্যাৎ, ৩০০ বছর আগে থেকেই যার অস্তিত্ব নেই! শুনে চক্ষু চড়ক গাছ হলেও মৃত স্বামীর ব্যাপারে আমান্দার কোনো মাথাব্যাথা নেই।


অন্য সাধারণ দম্পতিদের মতোই তাদের আলাপচারিতা, দেখা করা এমনকি যৌনতাও রয়েছে। বৈধভাবে বিয়ে করার জন্য তিনি আন্তর্জাতিক জলসীমায় প্রবেশ করেন। আইরিশ উপকূলে নৌকায় বিয়ের ওই আয়োজনে আমান্দার বন্ধু ও পরিবার উপস্থিত ছিল। বিয়ে পড়ানোর জন্য ছিলেন একজন রেজিস্ট্রার। আধ্যাত্মিক মাধ্যম ব্যবহার করে জ্যাক ‘আমি করব’ বলে বিয়েতে সম্মতি দেয়। জ্যাক সম্পর্কে আমান্দা সংবাদমাধ্যমকে জানান, তিনি আমার আত্মার সঙ্গী। আমি খুবই খুশি। এটা আমার জন্য সঠিক সম্পর্ক। এখানে অনেক লোক আছে যারা কেউই আধ্যাত্মিক সম্পর্ক বিষয়ে জানে না। আমি বার্তা দিতে চাই যে তাদের জন্যেও এটা সঠিক হতে পারে।


আমান্দা মনে করেন, জ্যাক কোনো একদিন তার কাছে আসতো। তাকে কখনো স্বশরীরে দেখেননি। কিন্তু কল্পনায় তিনি জ্যাককে ক্যারিবিয়ান পাইরেটস’র ক্যাপ্টেন হিসেবেই মনে করেন।


ভালোবাসার রোমান্সের শুরু ২০১৪ সালে। একদিন আমান্দা বিছানায় শুয়ে থাকা অবস্থায় তার পাশে আত্মার শক্তি অনুভব করেন। যখন বুঝতে পারেন আত্মাটি তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে তখন তিনি আরো আগ্রহী হয়ে ওঠেন। টিভি দেখার সময় কিংবা গাড়ি চালানোর সময় আত্মাটি তার পাশে এসে বসতে শুরু করলে তাদের সম্পর্ক ধীরে ধীরে আরো ঘনিষ্ঠ হয়। জ্যাকের জন্য আমান্দার অনুভূতি বেড়ে যাওয়ার কারণ হলো আলাপচারিতায় তারা একে অপরকে জানতে পেরেছিল। একদিন জ্যাক তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেয়।


এর আগে আমান্দার কোনো আধ্যাত্মিক বয়ফ্রেন্ড ছিল না। কিন্তু তিনি বিশ্লেষণ করে দেখেন আত্মা বা প্রেতের সঙ্গে সম্পর্ক আছে- এমন ব্যক্তি তিনি একা নন। আরো অনেকেই তার মতো অবস্থায় রয়েছে।


উত্তর আয়ারল্যান্ডের আমান্দা বিবাহিত। আগের ঘরে তার পাঁচ সন্তান রয়েছে। কিন্তু এখন তিনি তার নতুন স্বামীর সঙ্গে শক্ত সম্পর্ক অনুভব করেন।