দাম্পত্য জীবনের যে সময়ে সঙ্গী ঠকাতে পারে

লাইফ স্টাইল November 27, 2017 951
দাম্পত্য জীবনের যে সময়ে সঙ্গী ঠকাতে পারে

প্রতারণা কোনো খেলার পরিকল্পনা নয়। দাম্পত্য সম্পর্কে বিশ্বাসঘাতকতা একটি মর্মান্তিক বিষয় তবে আবেগে আচ্ছন্ন না হয়ে সমালোচলা এবং বিশ্লেষণাত্মক মন দিয়ে এটি দেখা উচিত।


গবেষকরাও এখন বিশ্বাসঘাতকতার মতো এই দুর্ভাগ্যজনক বিষয়টিকে নিয়ে বিশ্লেষণ করছেন। ক্যালিফোর্নিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের ‘ইরভিন স্ট্যাডি’ নামক গবেষণাতে জানিয়েছে, প্রতি ১১ শতাংশ আমেরিকান কোনো না কোনো ভাবে বিশ্বাসঘাতকতার স্বীকার হন তাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মানুষটির কাছ থেকে।


সাম্প্রতিক একটি গবেষণাতে বলা হয়েছে, প্রতারণার প্রবণতা সেই সব ক্ষেত্রে বেশি থাকে যেখানে সঙ্গী অবিশ্বাসী হয়ে থাকেন। দ্য জার্নাল অব সেক্স রিসার্চের প্রকাশিত একটি আর্টিকেলে দেখানো হয় যে, বিয়ে ভেঙে যাওয়ার অন্যতম কারণগুলোর মধ্যে সম্পর্কের ভিন্ন ভিন্ন পর্যায়ে প্রতারিত হওয়া নিয়ে গবেষণার ফলাফল।


৪২৩ জন অংশগ্রহণকারীর ওপর এই প্রশ্ন-উত্তর গবেষণার ফলাফলে বলা হয়, দাম্পত্য জীবনে পুরুষ এবং নারীর আলাদা আলাদা সময়ে বিশ্বাসঘাতকতার দিকে ঝোঁক তৈরি হয়। একজন নারী তার বিবাহিত জীবনের ৬ থেকে ১০ বছরের মধ্যে তার স্বামীকে ঠকান এবং একজন পুরুষ বিয়ের প্রায় ১১ বছর পর তার স্ত্রীকে ঠকান।


প্রতারণার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে তা হল লিঙ্গ, ধর্ম এবং বিয়ের সময়কাল। যদিও এই গবেষণাগুলো করা হয়েছিল প্রশ্ন উত্তরের প্রেক্ষিতে এবং বাস্তব জীবনের পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে করা হয়নি, তাই এর থেকে কোনো বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু তার মানে এটা নয় যে, দাম্পত্য সম্পর্ক বিশ্বাসঘাতকতা থেকে মুক্ত। যা হোক, আপনি আপনার দাম্পত্য সম্পর্ককে মজবুত রাখার চেষ্টা করুন।