ওয়ালটন প্রিমো 'জেডএক্স-থ্রি'

মোবাইল ফোন রিভিউ October 24, 2017 1,102
ওয়ালটন প্রিমো 'জেডএক্স-থ্রি'

প্রিমো 'জেডএক্স-থ্রি'। প্রথম দেশীয় ব্র্যান্ড হিসেবে ২০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরার এই স্মার্টফোন এনেছে ওয়ালটন। ইতিমধ্যে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে স্মার্টফোনটি। দাম ৩৩ হাজার ৯৯০ টাকা। মেটাল ডিজাইনের সুদৃশ্য ফোনটি ফোরজি সিম সমর্থন করবে।


▶ক্যামেরা ফিচার


নতুন এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনের সামনে রয়েছে ২০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ ক্যামেরায় ব্যবহূত হয়েছে ৪ সেলের লাইট সেন্সর প্রযুক্তি। এর পিডিএএফ প্রযুক্তি ০.১ সেকেন্ডেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে ক্যামেরার ফোকাস সেট করবে। রয়েছে 'বোকেহ সেলফি মোড'। যার মাধ্যমে সাবজেক্টকে ফোকাস করে আশপাশের সবকিছুকে ব্লার করে সেলফি তোলা যাবে। পেছনে রয়েছে ডুয়েল ক্যামেরা।


যার একটিতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল লেন্স, অন্যটিতে ৫ মেগাপিক্সেল লেন্স। ১৩ এমপির মেইন ক্যামেরা ধারণ করবে ছবির ডিটেইলস। আর ৫ এমপির সেকেন্ডারি ক্যামেরা ধারণ করবে ছবির ডেপথ-অব-ফিল্ড ইনফরমেশন, যা ডিএসএলআরের মতো প্রফেশনাল ব্যাকগ্রাউন্ড ও ইফেক্ট দেবে। যাকে বলা হয় 'পোর্টরেইট মোড'।


সব ক্যামেরায় রয়েছে মাল্টিলেয়ার লেন্স। ক্যামেরায় নরমাল মোড ছাড়াও ফেস বিউটি, এইচডিআর, টাইম ল্যাপস, স্লো মোশন, প্যানোরমা, স্মার্ট সিন, নাইট মোড এবং জিফের মতো আকর্ষণীয় অপশন তো থাকছেই। রয়েছে প্রফেশনাল ক্যামেরা মোডে ছবি তোলার সুবিধা।


▶ডিসপ্লে


নতুন এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনে ব্যবহূত হয়েছে ৬ ইঞ্চির আইপিএস প্রযুক্তির ফুল এইচডি ডিসপ্লে। ফলে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারে এবং ভিডিও দেখা, গেম খেলা, বই পড়া বা ইন্টারনেট ব্রাউজিং হবে আরও প্রাণবন্ত ও গতিময়। ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস ডিসপ্লে প্যানেল ব্যবহারের ফলে স্ট্ক্রিন টাচে গ্রাহক আরও বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবে। আঁচড় ও দাগ থেকে ডিসপ্লের সুরক্ষায় রয়েছে হাই প্রোটেকটিভ স্ট্ক্র্যাচ প্রুফ গ্লাস।


▶প্রসেসর, র‌্যাম ও রম


ফ্ল্যাগশিপ ফোনটির উচ্চগতি নিশ্চিত করতে রয়েছে ৬৪-বিট সম্পন্ন ২.৫ গিগাহার্জ গতির কর্টেক্স-এ৫৩ অক্টাকোর প্রসেসর। উন্নতমানের গেমিং ও স্পষ্ট ভিডিওর অভিজ্ঞতা দিতে গ্রাফিক্স হিসেবে ব্যবহূত হয়েছে মালি-টি ৮৮০। রয়েছে থ্রিডি সারাউন্ড সাউন্ড প্রযুক্তি। যাতে মিউজিক হবে আরও সুরেলা ও জীবন্ত। স্বাচ্ছন্দ্যে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা দিতে রয়েছে ৪ জিবি দ্রুতগতির এলপিডিডিআর ৪ এক্স র‌্যাম। আছে ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ মেমোরি। যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে অনেক বেশি ছবি, ভিডিও, ডকুমেন্টস ইত্যাদি সংরক্ষণ করা যাবে।


▶ব্যাটারি


জেডএক্স-থ্রি'র অন্যতম ফিচারের শক্তিশালী ব্যাটারি। ৪ হাজার ৫৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপ দেবে। ১৮ ওয়াট আল্ট্রা ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় খুব কম সময়ে পূর্ণ চার্জ হবে।


▶অপারেটিং সিস্টেম ও নিরাপত্তা


এটি অ্যান্ড্রয়েড নুগাট ৭.০ অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত। ফোনের তথ্য সুরক্ষায় রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। আঙুলের ছোঁয়ায় মাত্র ০.২ সেকেন্ডেই ফোনটি আনলক করা যাবে। অনলাইন কেনাকাটা বা অ্যাপ এক্সেসেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট কাজ করবে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর হিসেবে পাঁচ আঙুলের ব্যবহার করা যাবে।


▶সীমাবদ্ধতা


ব্যাটারিসহ হ্যান্ডসেটটির ওজন ২২৬ গ্রাম। অনেকের কাছে হ্যান্ডসেটটি খানিকটা ভারি লাগতে পারে।


স্মার্টফোনটিতে নোটিফিকেশন লাইট নেই। কিন্তু কল বা মেসেজ এলে একবার ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ জ্বলবে।


হাইব্রিড সিম স্লট। ডিভাইসটিতে এক সঙ্গে একটি সিম ও একটি মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। এজন্য দুটি সিম ব্যবহার করলে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে না।