মধু খাবেন যে কারণে

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 20th Aug 17 at 2:43pm 411
Googleplus Pint
মধু খাবেন যে কারণে

মধুর রয়েছে অনেক অনেক মধুর গুণ। সবচেয়ে কার্যকর গুণটি হচ্ছে এটি সকালবেলা খালিপেটে পানির সঙ্গে মিশিয়ে খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। চলুন জেনে নেই সেসব উপকারিতার কথা।

প্রতিদিন ১ গ্লাস মধু পানি পান করলে অ্যাসিডিটির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। মধুর অ্যান্টিসেপ্টিক গুণ পাকস্থলীর মিউকাসের নিঃসরণ ঘটায় যা জ্বালাপোড়া মুক্ত করে। এছাড়াও মধু পানি আমাদের কোলন ও ইনফিউসকে হাইড্রেট রাখতে সহায়তা করে।

প্রতিদিন সকালে ১ গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে পান করার অভ্যাস করলে দ্রুত ওজন কমে। মধু হচ্ছে প্রাকৃতিক চিনি যা আমাদের দেহে এনার্জির সরবরাহ করে এবং হজম প্রক্রিয়া উন্নত করে। মধু পানি জমে থাকা চর্বি দূর করতে সহায়তা করে থাকে।

প্রতিদিন ১ গ্লাস মধু পানি খাওয়ার অভ্যাস দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। মধুর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান দেহকে ভেতর থেকে সবল করে তোলে এবং যেকোনো ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে দেহকে তৈরি করে।

গ্যাসের সমস্যা হলে একধরণের অস্বস্তি কাজ করতে থাকে যা দূর করতে পারে মধু পানি এক নিমেষেই। গ্যাসের সমস্যা শুরু হলে ১ চামচ মধু ১ গ্লাস পানিতে মিশিয়ে পান করে ফেলুন। এটি পেট ঠাণ্ডা করবে এবং গ্যাসের সমস্যা দূর করবে।

প্রতিদিন ১ গ্লাস মধু পানি অ্যালার্জির সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে। প্রতিদিন সকালবেলা এক গ্লাস মধু পানি পানের ফলে দেহের পোলেন অংশগুলো যেসকল স্থানে অ্যালার্জির সংক্রমণ বেশি হয় সেসকল স্থানে একধরণের প্রতিরক্ষা পর্দার সৃষ্টি হয় যা সংবেদনশীলতা কমায় ও অ্যালার্জির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেয়।

এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে মধু মিশিয়ে পান করলে এটি দেহে ভালো কলেস্টোরলের মাত্রা বাড়িয়ে তোলে এবং কার্ডিওভাস্কুলার সমস্যা থেকে দূরে থাকতে সহায়তা করে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 14 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)