সৌন্দর্যচর্চায় কলার খোসা

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 16th Aug 17 at 12:02am 652
Googleplus Pint
সৌন্দর্যচর্চায় কলার খোসা

চুল ও ত্বকের যত্নে কলার ব্যবহার এখন আর অজানা নয়| তবে অনেকেরই জানা নেই, রূপচর্চায় কলার খোসাও বেশ কার্যকর।

কলার খোসায় রয়েছে ত্বকের জন্য উপকারী পুষ্টিগুণ এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। তাই এরপর থেকে কলা খেয়ে আর খোসা না ফেলে কাজে লাগান ত্বকের যত্নে।

রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন অবলম্বনে ত্বকের যত্নে কলার খোসা ব্যবহারের পন্থা এখানে দেওয়া হল।

বলিরেখা কমাতে: কলার খোসার ভেতরের অংশ ত্বকে হালকাভাবে ঘষে লাগিয়ে নিন। এরপর আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কলার খোসার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বক টানটান করতে সাহায্য করে এবং গায়ের রংয়ের অসমতাও দূর করে।

ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করতে: কলার খোসা ছোট আকারে কেটে ব্রণ ও ব্রণের দাগের উপর আলতো করে ঘষতে হবে। খোসাটি বাদামি হয়ে গেলে ব্রণের উপর দিয়ে রাখুন আধা ঘন্টা।

গরম পানিতে ভেজানো একটি তোয়ালে দিয়ে খোসাটি ডলে তুলে ফেলুন। ভালো ফল পেতে টানা কিছুদিন দুবেলা করে এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন। ব্রণের সমস্যার পাশাপাশি ত্বকে জ্বালাভাব হওয়ার সমস্যাও কমাতে সাহায্য করবে কলার খোসা।

চোখের কালি ও ফোলাভাব কমাতে: কলার খোসার ভেতরের সাদা অংশ চেঁছে অ্যালোভেরা-জেলের সঙ্গে মিশিয়ে চোখের নিচে লাগিয়ে রাখুন ঘন্টাখানেক। তারপর ধুয়ে ফেলুন। কলার খোসায় রয়েছে পটাশিয়াম এবং প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। অ্যালোভেরা চোখের নিচের ফোলাভাব এবং কালোদাগ দূর করতে সাহায্য করবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 16 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)