বালিশের দাম ৪৬ লাখ

সাধারন অন্যরকম খবর July 7, 2017 904
বালিশের দাম ৪৬ লাখ

এ যেন সত্যিই এক প্রকার টাকার বালিশে ঘুমানো। বালিশটির দাম ধরা হয়েছে মাত্র ৫৭ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪৬ লাখ ৫১ হাজার টাকারও বেশি। সম্প্রতি ঘুমের সমস্যায় ভোগা ব্যক্তিদের জন্যই এই বিলাসবহুল বালিশটি তৈরি করেছেন থিজেস ভেন ডার হিলসট নামে নেদারল্যান্ডসের এক ফিজিও থেরাপিস্ট।


তার দাবি, এই বালিশ ঘুমের যাবতীয় সমস্যার সমাধান দেবে। ভেন ডার হিলসটের তৈরি এই বালিশটিকে বিশ্বের সবচেয়ে দামি বালিশ হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। এর উপরিভাগ তৈরি করা হয়েছে মোলায়েম ম্যালবেরি সিল্ক দিয়ে। যার মধ্যে রয়েছে ২৪ ক্যারেট সোনার সুতোর বুনন। বালিশটির ভেতরে ব্যবহার করা হয়েছে উন্নতমানের মিসরীয় তুলা এবং অ-বিষাক্ত বলে পরিচিত ডাচ মেমরি ফোম।


এতেই শেষ নয়, বালিশটির জিপারে রয়েছে চারটি হীরা এবং ২২ দশমিক ২ ক্যারেট ওজনের একটি নীলকান্তমণি। ভেন ডার হিলসট জানান, ধনী মানুষরা অনেক সময় অসুখী হন। তারা ভালোভাবে ঘুমাতে পারেন না। তাই অনেক দিন ধরেই তার ধনী ক্লায়েন্টরা যেন ভালোভাবে ঘুমাতে পারেন সেজন্য কিছু একটা তৈরি করতে চাইছিলেন তিনি। অবশেষে দীর্ঘ ১৫ বছর গবেষণা করে তিনি এই বালিশ তৈরি করেছেন।


তিনি বলেন, 'ঘাড়ের রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে আমি সবসময়ই আমার রোগীদের ভালো বালিশ কেনার পরামর্শ দেই। কিন্তু সত্যিই ভালো বালিশ বলতে কী বোঝায়, তা আমি নিজেকেই প্রশ্ন করেছি। বাজারে সাধারণত তিন ধরনের বালিশ পাওয়া যায়। কিন্তু আমাদের প্রত্যেকেরই ঘাড়ের দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ কমবেশি হওয়ায় কোন বালিশটি সবচেয়ে উপযোগী খুঁজে পাওয়া কঠিন। এ ছাড়া প্রত্যেক মানুষেরই ঘুমের ধরন আলাদা। তাই সব কিছু চিন্তা করেই আমার দল এই বালিশ তৈরি করেছে।'


ভেন ডার হিলসট জানান, আগামী মাসে দুবাইয়ে তার ডিজাইন করা বিশেষ বালিশগুলোর একটি প্রদর্শনী হওয়ার কথা আছে।


সেখানে ৫৭ হাজার ডলার মূল্যের এই বালিশটিও রাখা হবে। খবর মিরর অনলাইন ও অডিটি সেন্ট্রালের।