শিক্ষা, আই লাভ ইউ

মজার সবকিছু April 18, 2016 880

এ সপ্তাহে ঢাকাই চলচ্চিত্রজগতে সবচেয়ে আলোচিত সিনেমা শিক্ষা, আই লাভ ইউ। কমেডি, থ্রিলার ধাঁচের এই সিনেমায় মূলত উঠে এসেছে প্রেম–ভালোবাসার ক্ষেত্রে চিরায়ত বিত্তবৈষম্য। একদিকে ভালোবাসার আকুলতা, অন্যদিকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ-সংগ্রাম। খলচরিত্রের অনবদ্য, অসংলগ্ন সংলাপ ও চাতুর্যপূর্ণ সুঅভিনয় আর অন্যদিকে নিজের ভালোবাসাকে জয় করার জন্য নায়কের সংগ্রামমুখর, বলিষ্ঠ অভিনয় পুরো কাহিনিকে দিয়েছে ভিন্নমাত্রা! ক্লাইম্যাক্স অ্যান্টি-ক্লাইম্যাক্সে ঠাসা এই ছবি আপনার বুক ধড়ফড়ানি বাড়িয়ে দেবে! ‘না জানি কী হয়! না জানি কী হয়’-টাইপের উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি করবে মনে ও মগজে।

সিনেমার শুরুতেই দেখা যায় গ্রামের মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান, নায়ক রাজু লেখাপড়া শিখে মানুষের মতো মানুষ হতে ঢাকায় পাড়ি জমায়। অচেনা-অজানা এই শহরে এসে ঘটনাক্রমে নায়কের সঙ্গে পরিচয় হয় শহুরে করপোরেট সৌন্দর্যের অধিকারী নায়িকা ‘শিক্ষা’র সঙ্গে। শিক্ষার ‘ওএমজি’-টাইপ রূপ দেখে চোখ ফেরাতে পারে না নায়ক! মুহূর্তেই প্রেমে পড়ে যায় তার। একসময় রাজু আর শিক্ষা, শিক্ষা আর রাজু হয়ে যায় দুজন দুজনার। একে অপরকে ছাড়া আর কিছুই ভাবতে পারে না তারা। শিক্ষাকে নিয়েই ভবিষ্যতের স্বপ্ন বুনতে শুরু করে রাজু। চলতে থাকে তাদের শাশ্বত প্রেম, এগিয়ে যায় কাহিনি।


রাজু-শিক্ষার প্রেম যখন একটি সুখের পরিণতির দিকে এগোচ্ছে, তখনই বাড়া ভাতে ছাই দেওয়ার অভিপ্রায়ে ‘মু হা হা হা’ অট্টহাস্যে আকাশ-বাতাস প্রকম্পিত করে আবির্ভাব ঘটে শিক্ষার সৎবাবা জামাল চৌধুরীর। বাধার দেয়াল হয়ে দাঁড়ান তিনি দুজনের প্রেমের মাঝখানে। কী হবে এখন রাজু আর শিক্ষার? তারা কি একে অপরের হতে পারবে না? দুষ্টু জামাল চৌধুরী শর্ত জুড়ে দেন সাড়ে সাত পারসেন্ট ভ্যাট দিলে তবেই শিক্ষা হবে রাজুর! কিন্তু মধ্যবিত্ত পরিবারের রাজুর জন্য এ যে অসম্ভব! এ অন্যায় মেনে নিতে পারে না রাজু। একদিকে নিজের প্রেম, অন্যদিকে পরিবার—প্রতিবাদে টগবগ করে ফুটতে থাকে তার রক্ত। কাহিনি মোড় নেয় অন্যদিকে। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই হঠাৎ শুরু হয় ‘ইয়া ঢিসুম ঢিসুম...ঢিসিয়া...ঠুসঠাস!’ সে কী ধুন্ধুমার কাণ্ড! উত্তেজনার এভারেস্টে থাকা দর্শকদের মনে তখন একটাই প্রশ্ন—শেষ পর্যন্ত কী ঘটে? ভ্যাট না ভালোবাসা—জয় হয় কোনটার?