মোবাইল ফোনের গতি কমে গেলে!

মোবাইল টিপস April 26, 2017 1,386
মোবাইল ফোনের গতি কমে গেলে!

অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোনের অ্যাপ্লিকেশন চালু হতে সময় নিচ্ছে? হয়তো গতি কমে গেছে আপনার প্রিয় স্মার্টফোনটির। নানা কারণেই অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোনের গতি কমতে পারে।


অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যারচালিত মোবাইল ফোন ব্যবহারের কয়েক মাসের মধ্যেই গতি কিছুটা কমে যেতে দেখবেন। সাশ্রয়ী কিংবা মাঝারি দামের স্মার্টফোনের মধ্যে এ সমস্যা বেশি দেখা যায়। দরকারের সময় ফোন যদি ঠিকঠাকমতো কাজ না করে, অনেকেই বিরক্ত হন। নিয়মিত ব্যবহারে পারফরম্যান্স খারাপ হতে শুরু করার পাশাপাশি ফোনের গতি কমে যায়। গতি কমার কারণগুলোর মধ্যে থাকতে পারে:


১. ফোনে অনেক বেশি অ্যাপ ইনস্টল থাকা।

২. ফোনের র‍্যাম কম হওয়া।

৩. ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজ ভর্তি হয়ে যাওয়া।


ফোনের গতি কমে যাওয়ার সাধারণ এ সমস্যা খুব সহজেই নিজে নিজে দূর করতে পারবেন। এ ধরনের সমস্যা সমাধানের অনেক উপায় আছে। জেনে নিন সমস্যা সমাধানের কয়েকটি উপায়:


১. স্মার্টফোনে ইনস্টল থাকা অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ মুছে ফেলুন।

২. স্মার্টফোনের হোম স্ক্রিনটিতে অতিরিক্ত উইজেট থাকলে সরিয়ে ফেলুন।

৩. স্মার্টফোনের লাইভ ওয়ালপেপার সরিয়ে দিন। সেখানে সাধারণ ছবির কোনো ওয়ালপেপার যুক্ত করতে পারেন।

৫. হালনাগাদ অ্যান্ড্রয়েড ইনস্টল করে নিন।

৬. ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজ ভর্তি থাকলে কিছুটা খালি করুন। অপ্রয়োজনীয় ছবি, ভিডিও, ফাইল মুছে ফেলুন।

৭. মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থন করলে আপনার ফাইল ফোনের স্টোরেজর পরিবর্তে মাইক্রোএসডি কার্ডে সংরক্ষণ করুন।

৮. অ্যাপের ডেটাগুলো Clear cached করুন। এ জন্য সেটিংস মেনুতে গিয়ে অ্যাপে ক্লিক করে সব অ্যাপসে Clear cached করুন এবং Settings > Storage এ গিয়ে Cached data ক্লিয়ার করুন।

৯. যেসব অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ড ডাটা চালায়, তা নিষ্ক্রিয় করুন বা সীমিত করে দিন।

১০. প্রথমেই আপনার ফোনে অন্য কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করার আগে শাট-ডাউন করুন অথবা আপনার ফোন পুনরায় আরম্ভ (রিস্টার্ট) করে চেষ্টা করুন। এতেও যদি কাজ না হয়, তবে ফোনের প্রয়োজনীয় তথ্য ব্যাকআপ নিয়ে স্মার্টফোনটি ফ্যাক্টরি রিসেট দিয়ে দেখতে পারেন।


এই সাধারণ পদক্ষেপগুলো ছাড়াও কয়েকটি অ্যাপ আপনার ফোনের গতি বাড়াতে পারে। এর মধ্যে একটি হচ্ছে ক্লিন মাস্টার। অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জাঙ্ক ফাইল মুছে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্টোরেজ খালি করে অ্যাপটি। এ ছাড়া র‍্যামও খালি রাখে অ্যাপটি। সুইফট লকার অ্যাপটিও কাজে লাগতে পারে।


তথ্যসূত্র: চিটসিট, গ্যাজেটস নাউ।