কীভাবে এল চুইংগাম?

জানা অজানা 24th Apr 17 at 11:09pm 735
Googleplus Pint
কীভাবে এল চুইংগাম?

চুইংগাম চিবোতে কি উপলক্ষ লাগে! অনেকে তো চুইংগাম চিবান রীতিমতো অভ্যাসের বশে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, কিশোর-তরুণদের প্রিয় এই খাবারের উৎপত্তি বেশ আগে।


গবেষকেরা বলছেন, চুইংগামজাতীয় খাদ্যের প্রচলন ঘটেছিল প্রায় ৯ হাজার বছর আগে। সে সময় উত্তর ইউরোপে বার্চগাছের বাকলের তৈরি একধরনের চুইংগামজাতীয় খাদ্য পাওয়া যেত।


এ ছাড়া প্রাচীনকালে মায়া ও অ্যাজটেক সভ্যতার যুগেও চুইংগাম ছিল বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। অবশ্য আধুনিক চুইংগামের আবির্ভাব উত্তর আমেরিকায় রেড ইন্ডিয়ানদের হাত ধরে। রেড ইন্ডিয়ানরা ফারগাছের আঠালো রসের তৈরি একধরনের চুইংগাম চিবোতেন, যা পরবর্তী সময়ে ইউরোপীয়দের মাধ্যমে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।


প্রথম চুইংগাম বাজারজাত করার প্রমাণ মেলে ১৮৪০ সালে। এই কাজটি করেন মার্কিন ব্যবসায়ী জন কার্টিস। তিনি ফারগাছ থেকে সংগৃহীত আঠালো রস গরম করে তা সমান করে কাটতেন, এরপর ভুট্টার মাড় দিয়ে মুড়িয়ে চুইংগাম বানাতেন। স্বাদ বাড়াতেও ভূমিকা রয়েছে জন কার্টিসের। তিনি এবং অন্য উৎপাদনকারীরা চুইংগাম তৈরিতে প্যারাফিন ওয়াক্স নামের একধরনের পাতলা মোমজাতীয় পদার্থ ব্যবহার শুরু করেন।


১৮৮০ সালের দিকে যুক্তরাষ্ট্রে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে চিকেল নামে একধরনের আঠা দিয়ে চুইংগাম। অবশ্য প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের সঙ্গে বদলাতে শুরু করে চুইংগাম তৈরির মূল উপাদান। বিংশ শতকের মধ্যভাগ থেকে চুইংগাম তৈরি হতে থাকে বিভিন্ন কৃত্রিম খাদ্য উপাদান দিয়ে।


হিস্ট্রি ডট কম অবলম্বনে

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 23 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)