ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে কাঠবাদামের ৬টি ফেসপ্যাক

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস April 16, 2017 2,061
ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে কাঠবাদামের ৬টি ফেসপ্যাক

ছোটখাটো ক্ষুধা মেটাতে কাঠবাদামের জুড়ি নেই। শুধু স্বাস্থ্যকর স্ন্যাক্স হিসেবে নয় ত্বকের যত্নেও কাঠবাদাম বেশ কার্যকর। কাঠাবাদামে রয়েছে ভিটামিন ই যা ত্বককে নরম ও কোমল করে তোলে। এমনকি কাঠবাদাম ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে। ব্রণ, ব্ল্যাক হেডস দূর করতেও কাঠবাদামের ফেসপ্যাক অনেক উপকারী। কাঠবাদামের কিছু কার্যকরী ফেসপ্যাক নিয়ে আজকের এই ফিচার।


১। কাঠবাদাম এবং ওটস ফেসমাস্ক

দুই চামচ কাঠবাদাম গুঁড়ো এবং দুই চামচ ক্রিমের সাথে তিন চামচ ওটস মিশিয়ে নিন। এটি প্যাক হিসেবে ত্বকে ব্যবহার করুন। প্রতিদিন এটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ত্বকের মৃত কোষ দূর করে ত্বক ভিতর থেকে পরিষ্কার করে থাকে। প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন এই প্যাকটি। শুষ্ক এবং নিস্তেজ ত্বকের জন্য এটি বেশ উপকারী।


২। কাঠবাদাম এবং মুলতানি মাটির ফেসমাস্ক

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য কাঠবাদাম এবং মুলতানি মাটির প্যাকটি বেশ কার্যকর। দুই চামচ কাঠবাদামের গুঁড়ো এবং দুই চামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিন। এরসাথে এক চামচ দুধ মেশাতে পারেন। প্যাকটি যেন ঘন হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।


৩। কাঠবাদাম এবং কমলার রস

কাঠবাদাম এবং কমলার ফেস মাস্ক ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বৃদ্ধি করে। এটি ত্বককে ভিতর থেকে উজ্জ্বল করে তোলে। দুই চামচ কাঠবাদামের গুঁড়ো এবং দুই-তিন চামচ কমলার রস একসাথে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি ত্বকে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।


৪। কাঠবাদাম এবং চন্দনের গুঁড়ো

দুই চামচ কাঠবাদামের গুঁড়ো এবং দুই চামচ চন্দনের গুঁড়োর সাথে কিছু পরিমাণ দুধ মিশিয়ে নিন। এই প্যাকটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।


৫। কাঠবাদাম এবং টকদই

দুই চামচ কাঠবাদামের গুঁড়ো, দুই চামচ টকদই, এক চামচ লেবুর রস এবং এক চামচ মধু একসাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।


৬। কাঠবাদাম এবং নারকেলের দুধ

দুই চামচ কাঠবাদামের গুঁড়ো এবং নারকেলের দুধ একসাথে মিশিয়ে নিন। এরসাথে কিছুটা মধু এবং গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। এই প্যাকটি ত্বকে ব্যবহার করুন। কিছুক্ষণ পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি মিশ্র ত্বকের জন্য উপকারী।