আপনার আয়ু সম্পর্কে কপালের রেখা কী বলছে?

লাইফ স্টাইল April 15, 2017 1,024
আপনার আয়ু সম্পর্কে কপালের রেখা কী বলছে?

শুনতে আজব লাগলেও এই যুক্তিকে একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাবে না কিন্তু! কারণ বাস্তবিকই কপালের রেখা দেখে আয়ু বলে দেওয়া সম্ভব। কীভাবে? সেই নিয়েই তো আলোচনা করা হল এই প্রবন্ধে।


হাতের রেখার মতোই কপালের রেখাও মানুষভেদে আলাদা আলাদা হয়। তাই তো কারও রেখা হয়ে খুব স্পষ্ট, তো কারও কোনও রেখাই থাকে না। তাহলে এখন প্রশ্ন হল, কীভাবে বিশ্লেষণ করতে হবে কপালের রেখাকে? চলুন নজর ফেরানো যাক সেদিকে।


পৌরানিক পুঁথি ঘেঁটে জানা গেছে যাদের কপালে কমপক্ষে দুটি গাড় রেখা রয়েছে, তারা কমপক্ষে ৬০-৬৫ বছর বাঁচবেন। এখানেই শেষ নয়, এমন রেখার অধিকারিরা খুব ব্যক্তিত্বপূর্ণ হয় বলেও উল্লেখ রয়েছে নানা জায়গায়।


সেই সঙ্গে এরা শুভ ভাগ্যের অধিকারিও হন। তবে যাদের কপালে গাড় রেখা তো রয়েচে, কিন্তু সেগুলি একে অপরের উপর দিয়ে চলে গেছে, তাহলে বুঝতে হবে ওই ব্যক্তি জীবনে সব কিথু পাবেন ঠিকই। কিন্তু তার জন্য অনেক কষ্ট করতে হবে।


বেদের একটা অংশে লেখা রয়েছে যাদের কপালে তিনটি স্পষ্ট রেখা রয়েছে, তাদের আয়ু কম করে ৭৫ বছর হয়। কিছু ক্ষেত্রে তো আযু আরও বেড়ে যায়। শুধু তাই নয়, এদের জীবন বেশ আরামেই কাটে। তা আপনার কপালে কটা রেখা আছে, একবার দেখুন তো!


এমনটা দেখা গেছে, যাদের মাথার নিচের অংশ একটু ভিতরের দিকে ঢোকা থাকে এবং কপালে ৪ টি রেখা থাকে, তাদের জীবনকাল হয় প্রায় ৭৫ বছর।


যাদের কপালে ৫ টি স্পষ্ট রেখা রয়েছে এবং সেগুলি একেবারে সমান , তাতে কোনও ছেদ নেই, তাহলে বুঝবেন হবে ওই ব্যক্তির জীবন খুব সুন্দর হবে। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যও খুব ভাল হবে। পৌরানিক মতে এমন রেখার অধিকারিরা ৯০ বছরেরও বেশি সময় বেঁচে থাকেন।


আপনার কপালে কি পাঁচটি রেখা রয়েছে? আর সগুলির সবকটিই এবরো-খেবরো, তাহলে একটু সাবধান থাকতে হবে আপনাকে। কারণ একাধিক প্রাচীন পুঁতিতে এমন উল্লেখ রয়েছে যে যাদের কপালের রেখা এমন হয়, তাদের শরীরের অবস্থা খুব একটা ভাল থাকে না। এমনকী এদের জীবনকালও খুব কম হয়।


এমনও অনেক আছেন যাদের কপালে সেভাবে কোনও রেখাই দেখতে পাওয়া য়ায় না। এমন মানুষরা সাধারণত ৪৫-৫০ বছর বাঁচেন। শুধু তাই নয়, এদের জীবন খুব একটা সুখকরও হয় না।


এমনটা মনে করা হয় যে, যাদের কপালে দুটি রেখা রয়েছে এবং সেই দুটি একটা পয়েন্টে গিয়ে একে-অপরের সঙ্গে লেগে গেছে, তাহলে বুঝতে হবে ওই ব্যক্তি প্রায় ৬০ বছর পর্যন্ত বাঁচবেন। তবে এদের শরীর একেবারেই ভাল যায় না। অর্থাৎ এমন রেখার অধিকারিরা বাঁচবেন তো অনেক কাল, কিন্তু সেই জীবন খুব একটা সুখের হবে না।


সূত্রঃ বোল্ডস্কাই