সকালের নাস্তায় যা খাওয়া উচিত নয়

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস April 2, 2017 697
সকালের নাস্তায় যা খাওয়া উচিত নয়

দিনের প্রথমভাগেই যদি বেশি ক্যালরি গ্রহণ করা হয় তবে ওজন কমানোর চেষ্টা বৃথা যেতে পারে।


খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সকালের নাস্তা সুস্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হলেও কিছু খাবার হতে পারে ওজন বৃদ্ধির কারণ।


মাফিন: মুখে এর স্বাদ স্বর্গীয় মনে হলেও স্বাস্থ্যগত দিক থেকে তা নাও হতে পারে। ওজনে একটি মাফিন সাধারণত মাত্র ৭০ গ্রাম হলেও, থাকে কমপক্ষে ২২০ ক্যালরি। তাই মাখন, প্রক্রিয়াজাত আটা কিংবা ময়দা আর চিনিতে ভরপুর এই খাবার ওজন কমানোর পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।


প্যানকেক: মিষ্টি স্বাদের এই পিঠা বেশ মুখরোচক। আর তা যদি পরিবেশন করা ম্যাপল সিরাপের সঙ্গে তাহলে তো কথাই নেই। তবে মনে রাখতে হবে, স্বাদের পাশাপাশি এতে আছে ২২৭ ক্যালরি আর নেই কোনও পুষ্টিগুণ।


ওয়াফলস: উপরে হুইপড ক্রিম দেওয়া ওয়াফলসের নাম শুনলে জিভে পানি আসবে অনেকেরই। তবে খেতে বসার আগে একবার হিসাব করে নিতে হবে। কারণ এতে থাকা ২৯১ ক্যালরি পোড়াতে কতটুকু ব্যায়াম করতে হবে।


স্টাফড ফ্রেঞ্চ টোস্ট: দুধ-ডিমে ভেজানো ভাজা পাউরুটি হয়ত ছোটবেলার কথা মনে করিয়ে দেবে। তবে যদি ওজন কমাতে চান তবে খাবারটি স্মৃতি রোমোন্থন ছাড়া আর কোনও কাজে আসবে না। কারণ এতে সাধারণত ২২৯ ক্যালরি থাকে। সুঠাম দেহ পাওয়ার লক্ষ্য থেকে আপনাকে দুইটি কারণে দূরে সরাবে খাবারটি। প্রথমত, এটি তেলে ভাজা। দ্বিতীয়ত এর উপরে থাকা মাখনে থাকে প্রচুর চিনি।


আলুচপ: সকালে খিচুড়ির সঙ্গে ঘরে তৈরি গরম আলুচপ- নাস্তার এই পদ শুনেই হয়ত আপনার ঘুম কেটে যাবে। তবে শুধু এই চপেই মিলবে প্রায় ৩২৯ ক্যালরি যা পুরো একবেলার খাবারের চাইতেও বেশি।


মাখন ও পাউরুটি: যদি ধারণা না থাকে তবে জেনে রাখুন এই খাবারে থাকে প্রায় চারশোরও বেশি ক্যালরি।


টিকেক: চারকোণা এই মিষ্টি খাবারে থাকে গাজর, আখরোট, কাজুবাদাম ও কলা। ভাবছেন সবই তো পুষ্টিকর খাবার, তবে সমস্যা কোথায়? সমস্যা হল এতে থাকা ২২০ ক্যালরি।


জ্যাম ও জেলি: ফল থেকে তৈরি এই সুস্বাদু এই খাবার সামনে পেলে যেন পুরো কৌটাই শেষ করে ফেলতে মন চায়। তবে সামলে নিন নিজেকে। কারণ এতে আছে প্রচুর চিনি আর চিনি মানেই ক্যালরি। তাই ওজন কমানোর খাদ্যাভ্যাসে জ্যাম কিংবা জেলি থাকা উচিত নয়।