কাউকে ক্ষমা না করলে আল্লাহ শাস্তি দেবেন কি?

ইসলামিক শিক্ষা March 27, 2017 1,584
কাউকে ক্ষমা না করলে আল্লাহ শাস্তি দেবেন কি?

প্রশ্ন : আমি আমার ভাবীর সঙ্গে অনেক দিন ধরে কথা বলি না। কারণ, তিনি আমার মায়ের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেননি। আমার মা মারা গেছেন, কিন্তু এখনো আমি তাঁর সঙ্গে কথা বলি না। আমার মায়ের চোখের পানি আমি ভুলতে পারি না। আমি যদি তাঁকে ক্ষমা না করি, তাহলে কি আল্লাহ সুবানাহুতায়ালা আমাকে শাস্তি দেবেন? এখন আমি কী করব?


উত্তর : আপনি মূলত হারাম কাজ করছেন। কারণ, ইমানদার ব্যক্তিদের জন্য রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘একজন ব্যক্তি আল্লাহর প্রতি ইমান আনবে, আখিরাতের প্রতি ইমান আনবে, তাঁর জন্য জায়েজ নেই যে তাঁর ভাইকে সে বর্জন করবে, তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলবে না তিন দিনের বেশি।’ আপনি অনেক সময় কথা বলছেন না।


কোনো একটা বিষয়ে হয়তো মতবিরোধ থাকতে পারে বা তাঁরও কোনো অপরাধ হতে পারে, মায়ের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন বা অন্য একটা খারাপ কাজ করেছেন, হতে পারে। এর শাস্তি দেওয়ার দায়িত্ব আপনার নয়। আপনি তাঁর সঙ্গে সৌজন্য আচরণ করবেন, এর কারণে অন্যায় করার সুযোগ নেই।


সে একটা অন্যায় করেছে, আপনি আরেকটা অন্যায় করেছেন, এতে সম্পর্কের অবনতি হয়েছে; বরং তাঁকে হয়তো এই পথ থেকে আরো সহজ পথে আনা যেত। সংশোধন করা যেত; কিন্তু সেটা করারও সুযোগ হলো না, বিচ্ছিন্নতা তৈরি হলো।


আপনি যে কাজটি করেছেন, শুদ্ধ কাজ করেননি। আপনি আল্লাহতায়ালার কাছে তওবা করে তাঁর সঙ্গে সৌজন্যতা বজায় রাখুন। আমি বলছি না যে, তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব তৈরি করুন, সৌজন্যমূলক সামাজিক আচরণ বজায় রাখুন।


কারণ, যেহেতু সে আপনার দ্বীন-ই বোন, হতে পারে এই সৌজন্য আচরণে তাঁর মধ্যে একটা আত্মোপলব্ধি তৈরি হতে পারে যে ‘আমি ভুল করেছি, আমার এ আচরণ শুদ্ধ ছিল না’। তাহলে হয়তো সেও তওবা করতে পারে, সেও হয়তো ক্ষমা চাইতে পারে। এ জন্য তাঁকে এতটুকু সুযোগ করে দিন।


সূত্রঃ আপনার জিঙ্গাসা, এনটিভি অনলাইন