অফিসে প্রেম? সাবধান থাকুন এই বিষয়গুলোতে!

লাইফ স্টাইল 24th Mar 17 at 11:52pm 390
Googleplus Pint
অফিসে প্রেম? সাবধান থাকুন এই বিষয়গুলোতে!

অফিসে কাউকে খুব পছন্দ হয়ে গিয়েছে? বা বসের সঙ্গে প্রেম জমে উঠেছে? অথবা হয়তো প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরও সাবেক প্রমিকের সাথে প্রতিদিন একই অফিসে বসে কাজ করতে হয়।

এই ধরনের পরিস্থিতি কর্মক্ষেত্রে হতেই পারে। আর তার ফলে কখনও গুজবের শিকার হতে হয়, কখনও বা প্রভাব পড়ে ব্যক্তিগত জীবনের উপর। যেগুলো কোনওটাই কাঙ্খিত নয়।

যদিও অফিসে প্রেম করা খুব একটা ভাল বিষয় নয়, তা সত্ত্বেও কিছু কিছু ব্যাপারে সাবধান থাকলে বা এড়িয়ে চলাই ভালো-

১. যদি আপনি নিজে বস হন আর আপনার থেকে নিচু পদে থাকা কারও প্রতি আকৃষ্ট হন তাহলে যতটা সম্ভব নিজেকে সামলে রাখার চেষ্টা করুন। কেরিয়ার নষ্ট হওয়ার ভয়ে হয়তো চাইলেও আপনাকে প্রত্যাখ্যান করতে পারবেন না আপনার অধীনস্থ সহকর্মী।

২ যে কোনো অফিস রোম্যান্সের ক্ষেত্রেই গুজব রটবেই। কিন্তু যদি দু'জনেই সমপদে কাজ করেন তাহলে গুজব কিছুটা কম রটে। যদিও পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের অনেক বেশি গুজব সামলাতে হয়।

৩. যদি দেখেন আপনার প্রতি কেউ যৌনতা সম্পর্কিত কমেন্ট করছেন, ইঙ্গিতপূর্ণ দৃষ্টিতে তাকাচ্ছেন ও অতিরিক্ত প্রশংসা করছেন তাহলে কিন্তু এই সঙ্কেতগুলো এড়িয়ে যাবেন না।

৪. যদি কাউকে পছন্দ করেন ও তার সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করতে চান তাহলে সরাসরি গিয়ে ফোন নম্বর চেয়ে নিন।

তার ফাইল ঘেঁটে বা কোনও সহকর্মীদের থেকে মোবাইল নম্বর জোগাড় করার চেষ্টা করবেন না।

৫. আপনি কাউকে যতই পছন্দ করুন না কেন, যতদিন না তার কাছ থেকে কোনো সবুজ সঙ্কেত মিলছে,

ততদিন তাকে অতিরিক্ত প্রশংসা করা বা তার প্রতি কোনো রকম সেক্সুয়াল কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।

৬. যাকে পছন্দ করেন তার সঙ্গে যদি চলাফেরা করতে গিয়ে কখনও স্পর্শ হয় তাহলেই মনের ভাব অনেকটা বুঝে ফেলা যায়। যদি দেখেন আপনি তার কাছাকাছি গেলে তিনি সরে যাচ্ছেন বা অযাচিত স্পর্শে বিরক্ত হচ্ছেন, তাহলে অবিলম্বে পিছিয়ে আসুন। এর থেকে স্পষ্ট যে উনি আপনাকে পছন্দ করছেন না।

৭. যদি আপনাদের মধ্যে সত্যিই কোনও সম্পর্ক গড়ে ওঠে, এবং আপনার সঙ্গী তা অফিসে গোপন রাখতে চান তাহলে তাঁর সিদ্ধান্তে সম্মান জানান। অফিসে এমন কোনো আচরণ করবেন না যাতে আপনার সঙ্গী অস্বস্তিতে পড়েন।

৮. যদি কোনো কারণে আপনাদের সম্পর্ক খারাপ ভাবে শেষ হয়ে যায় এবং প্রাক্তনের সঙ্গে অফিসে কাজ করতে বাধ্য হন, তাহলে অবশ্যই ব্যক্তিগত জীবনকে দূরে রাখুন। অফিসে এমন কোনো আচরণ করবেন না যাতে আপনাদের ব্যক্তিগত রাগ প্রকাশ হয়ে পড়ে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 26 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)