যে খাবারগুলো কাঁচা খাওয়া ক্ষতিকর

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস March 11, 2017 767
যে খাবারগুলো কাঁচা খাওয়া ক্ষতিকর

আমাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় এমন কিছু খাবার রয়েছে যেগুলোকে আমরা ভাবি কাঁচা খেলে বেশি উপকার হবে। কিন্তু পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা সেগুলো কাঁচা না খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। জেনে নিন, এমন কিছু খাবার সম্পর্কে।


টমেটো

টমেটো কাঁচা বা রান্না করে উভয় ভাবেই খাওয়া যায়। তবে খাদ্য ও পুষ্টিবিদেরা টমেটো কাঁচা খাওয়ার চেয়ে রান্না করে খাওয়ার ব্যাপারে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ কাঁচা টমেটোতে গ্লিকোলক্যালিওডস নামক উপাদান থাকে, যা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা ও শরীরে বাজে গন্ধ সৃষ্টি করে।


মাশরুম

মাশরুম হল এক ধরনের ছত্রাক। আধুনিক পদ্ধতিতে চাষ করা মাশরুম অত্যন্ত পুষ্টিকর এবং ওষুধি গুণসম্পন্ন একটি উৎকৃষ্ট খাবার। তবে মাশরুম কাঁচা খাওয়া উচিত নয়। কারণ কাঁচা মাশরুমে কার্সিনোজিনিক নামক উপাদান থাকে, যা শরীরে তীব্র বিষক্রিয়ার সৃষ্টি করে।


আলু

প্রায় প্রতিদিন অন্যান্য খাবারের পাশাপাশি আমরা আলু খেয়ে থাকি। পুষ্টির দিক দিয়ে বিচার করলে আলুকে ভাত ও গমের সঙ্গে তুলনা করা যায়। তবে আলু কাঁচা খাওয়ার চেষ্টা না করাই ভালো। কারণ কাঁচা আলুতে ক্ষতিকর বিষাক্ত কিছু উপাদান থাকে, যা হজম প্রক্রিয়ায় মারাত্বক সমস্যা সৃষ্টি করে।


স্প্রাউট বা অঙ্কুরিত বীজ

কোনো কোনো সবজির বীজ যেমন মটরশুটির অঙ্কুরিত বীজ আমরা খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করে থাকে। তবে তা কাঁচা খাওয়া উচিত নয়। কারণ অঙ্কুরিত কাঁচা বীজে স্যালমোনিলা নামক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকে, যা থেকে শরীরে সমস্যার সৃষ্টি করে।


ফুলকপি ও ব্রোকলি

ফুলকপি ও ব্রোকলি খেলে সালাদ হিসেবে কাঁচা তা হজমে সমস্যা সৃষ্টি করে।


কাজুবাদাম

কাজুবাদাম কিছুক্ষণ পানি ভিজিয়ে রেখে না খেলে পেটে সমস্যা এমনকি ক্যানসারও হতে পারে।


দুধ

কাঁচা দুধে ব্রুসিলা এবং লিস্টেরিয়া নামক পদার্থ থাকে, যার কারণে ডায়রিয়া, পেট ব্যাথা, বমি হতে পারে।


ডিম

কাঁচা ডিমে স্যাল্মোনিলা নামক উপাদান থাকে, যা শরীরে সমস্যা সৃষ্টি করে থাকে।