কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস March 10, 2017 829
কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে

‘ত্যাগেই আনন্দ’। তবে ঠিক মতো পেট খালি করতে না পারলে সারাদিন বেশ অস্বস্তি হয়। তাই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় এই ধরনের খাবার খাওয়া অভ্যাস করতে পারেন।


স্বাস্থ্যবিষয়ক এক ওয়েবসাইটের মতে, অনেক সময়ই এর কারণটা লুকিয়ে থাকে খাদ্যাভ্যাসে, আর তা হল পর্যাপ্ত আঁশের অভাব।


আঁশের অভাব পূরণের জন্য রয়েছে নানান ধরনের খাবার।


আপেল: কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে ফলটি বেশ উপকারী। প্রতিটি আপেলে থাকে প্রায় সাড়ে ৪ গ্রাম আঁশ। তাই সারাদিনে অন্তত একটি আপেল খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে পারেন।


কমলা: প্রতিটি কমলায় প্রায় ৪ গ্রাম আঁশ মেলে, আর এতে ক্যালরির পরিমাণও কম। এছাড়াও থাকে ‘ফ্লাভানল’ নামক উপাদান যা কাজ করে ‘ল্যাক্সাটিভ’ বা রেচক হিসেবে।


পপকর্ন: আশ্চর্য শোনালেও মল নরম করতে কার্যকর পপকর্ন বা খই। এক কাপ খইয়ে থাকে প্রায় ১ গ্রাম আঁশ আর কোনো রকম স্বাদবর্ধক বা লবণ ছাড়া খেলে ক্যালরি গ্রহণের পরিমাণ কম থাকে। তাই সিনেমা দেখার সময় খই নিয়ে বসুন, উপকার মিলবে শৌচাগারে।


ওটস: মাত্র এক কাপ ওটস থেকেই মিলবে প্রায় ২ গ্রাম দ্রাব্য এবং অদ্রাব্য আঁশ। মল নিঃসরণ সহজ করতে এটি বেশ উপকারী।


তিসির দানা: এতে থাকে প্রচুর ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও আঁশ। তবে মলত্যাগ নিয়মিত করতে প্রয়োজনীয় উপাদানটি হল আঁশ। এই বীজ শুকনা কড়াইতে ভেজে নিতে হবে। মাত্র এক চামচ তিসির দানায় মিলবে প্রায় ২ গ্রাম আঁশ।


অ্যালোভেরা: ত্বক আর চুলের যত্নে অ্যলোভেরার ভূমিকা সম্পর্কে হয়ত অনেকবার শুনেছেন। ‘ল্যাক্সাটিভ’জাতীয় সবজি হওয়ার মল পিচ্ছিল করতেও এটি উপকারী।