শিশুকে যে কথাগুলো বলা জরুরি

লাইফ স্টাইল February 22, 2017 581
শিশুকে যে কথাগুলো বলা জরুরি

শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই এই গুরু দায়িত্ব পালনে বাবা-মাকে এখন থেকেই শিশুকে প্রস্তুত করতে হবে। তা না হলে আপনার সন্তান পিছিয়ে পড়বে।


তাই তো শিশুকে এমন শিক্ষা দেয়া উচিত যা তাকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে সাহায্য করবে এবং তার জীবনে সফলতা এনে দেবে। আর এজন্য বাবা-মা হিসেবে শিশুকে কিছু কথা আপনার অবশ্যই বলতে হবে, যা সে শিক্ষা হিসেবে গ্রহণ করবে ও মনে রাখবে।


• এ বিষয়ে জরুরি শিক্ষাগুলো নিম্নে আলোচনা করা হলো...


* শিশুকে পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি অন্য বই পড়ার অভ্যেস গড়ে তুলুন। এছাড়া তাকে সারাংশ লেখার অভ্যাস করান। চলছে একুশে বই মেলা, আপনি সেখানেও তাকে নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন ছড়া বা গল্পের বই কিনে দিতে পারেন। এতে তার উৎসাহ বাড়বে।


* এখন শিশুরা ভিডিও গেমস ও মোবাইল ফোন নিয়ে খেলা করে। এতে তাদের অনেক মূল্যবান সময় নষ্ট হয়। তাই তাদের নিয়ম মেনে সময় বেঁধে দিন, দেখবেন এতে তার পড়ারও কোনো ক্ষতি হবে না।


* বর্তমানে টিভি ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিশুরাও অনেক সময় ব্যয় করে। তাই তাদের টিভি দেখতেও সময় বেঁধে দিন।


* সুস্থ মস্তিষ্কের জন্য শারীরিক অনুশীলন দরকার। এ কারণে শিশুদের প্রতিদিন খেলাধুলা করতে দিন। এতে তার শরীরও সুস্থ থাকবে।


* শিশুকে রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে শেখান। সহপাঠীদের সঙ্গে খেলতে গেলে ঝগড়া বিবাদ তো হবেই, তাই বলে রাগ কেন? তাকে সংযত হতে শেখান। পাশাপাশি আপনিও সংযত হন কারণ বাবা-মায়েরও রাগ দেখেও সে এ ধরনের আচরণ করতে পারে।


* শিশুকে সপ্তাহের, মাসের বা বছরের দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্য নির্ধারণ করা ও নিয়মিত তার অগ্রগতি পর্যালোচনা করতে শেখান। তাকেও জানতে দিন তার অগ্রগতি কতোটুকু।


* শিশুকে জনহিতকর কাজ করতে শেখান। যে কোনো বিষয়ে কারো কাছে উপকৃত হলে ধন্যবাদ দেয়া শেখান। এছাড়া তাকে ভদ্রতাও শেখাতে হবে।


* শিশুকে একটি মাটির খুঁটি বা ব্যাংক কিনে দিন এবং সেখানে সঞ্চয় করতে উৎসাহিত করুন।


* শিশুকে যে কোনো দরকারে বা বিপদে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থাকার বিষয়টি শেখাতে হবে। ভবিষ্যতে সে যেন কোনো বিপদে পড়লে তাদের সহায়তা নেয় সেটাও জানাতে হবে।


* শিশুকে সময় জ্ঞান দেয়া জরুরি। তাকে প্রতিদিনের বাড়ির কাজের তালিকা তৈরি করতে বলুন। এটি তাকে মেনে চলার উপায় বাতলে দিন।


* শিশুরা কোনো ভুল কাজ করলে তাকে বকাঝকা না দিয়ে শুধরে দিন। এতে সে হতাশ হবে না বরংতার মনোবল বাড়বে।


* শিশুর সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলুন তবে সামনা-সামনি ফোনে নয়।


* মাঝে মাঝে ছুটির দিন শিশুকে নিয়ে দূরে কোথাও বেড়াতে যান। সময় কম থাকলে কাছে কোথাও ঘুরে আসুন। এসময় খেলার ছলে শিশুকে নানা বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করুন। সঠিক জবাব দিলে শুধু শিশুর না আপনারও ভালো লাগবে।