গর্ভপাত ঘটাতে পারে যে খাবারগুলো

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 19th Feb 17 at 11:45pm 577
Googleplus Pint
গর্ভপাত ঘটাতে পারে যে খাবারগুলো

গর্ভধারণ বিষয়টি প্রত্যেক নারীর জন্য আনন্দময় একটি ব্যাপার। কিন্তু আনন্দের পাশাপাশি প্রত্যেক নারীকে এই সময় থাকতে হয় একটু বেশী সর্তক। গর্ভাবস্থায় প্রত্যেক নারীকে শারীরিক কিছু সমস্যার সম্মুখিন হতে হয়। একটি ছোট ভুল বা অসর্তকতা এই সমস্যাকে করে তুলতে পারে বড়, ঘটে যেতে পারে যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। এই সময় মাকে অনেক পুষ্টিকর খাবার খেতে হয়। আবার কিছু খাবার এড়িয়ে যেতে হয় অনাগত সন্তানের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে। এমন কিছু খাবার নিয়ে আজকের এই আয়োজন যা গর্ভবতী মহিলাদের এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

১। আনারস

আনারসের রস অনেক সময়ে ডেলিভারি প্রক্রিয়াকে সহজ এবং দ্রুত করার জন্য ব্যবহার করা হয়। তবে গর্ভধারণের প্রথম তিন মাস আনারস খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত। এতে থাকা উপাদান গর্ভপাত ঘটাতে পারে। গর্ভকালীন পুরো সময়টি আনারস না খাওয়ার চেষ্টা করুন।

২। পেঁপে

পেঁপে, বিশেষ করে কাঁচা পেঁপে গর্ভপাতের জন্য দায়ী অন্যতম একটি খাবার হিসেবে গন্য করা হয়। কাঁচা পেঁপেতে ল্যাকট্রিক্স নামক একটি উপাদান আছে যা গর্ভপাতের মত দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে।

৩। অঙ্কুরিত আলু

আঙ্কুরিত আলু শুধু গর্ভকালীন নারীদের জন্য নয় সকলের জন্য এটি ক্ষতিকর। আলু যখন অঙ্কুরিত হয় তখন সেটিতে নানান বিষাক্ত পর্দাথ দেখা দেয়, যা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। সবুজ অঙ্কুরে সোলানিন নামক উপাদান রয়েছে যা ভ্রূণ বৃদ্ধিতে বাঁধা প্রদান করে থাকে।

৪। ধনেপাতা

ধনেপাতা অনেকের বেশ পছন্দ। কিন্তু গর্ভকালীন সময় এই খাবারটি এড়িয়ে চলুন। এমনকি ধনেপাতার জুস গর্ভধারণ হওয়ার সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়। এটি পেটে গ্যাস সৃষ্টি করে পেট ফাঁপা ভাব সৃষ্টি করে।

৫। তিল

গর্ভকালীন সময়ে তিল বা তিল জাতীয় খাবার কম খাওয়া উচিত। বিশেষ করে তিল মধুর সাথে মিশিয়ে খাওয়া খুবই ক্ষতিকর। এটি স্বতঃস্ফূর্ত গর্ভপাত ঘটিয়ে থাকে। গর্ভকালীন সময় তিল খাওয়া থেকে বিরত থাকাই ভালো।

৬। অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা জেল নারীর রুপচর্চার অন্যতম একটি উপাদান। এটি ত্বক, চুল, হজমের জন্য বেশ উপকারি। গর্ভকালীন সময় অ্যালোভেরার জুস খাওয়া উচিত নয়। বেশি ভালো হয় এই সময়টি সকল ধরনের অ্যালোভেরা দিয়ে তৈরি পানীয় বা খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকা।

৭। কলিজা

কলিজা খাবারটি পুষ্টিকর এবং মজাদার একটি খাবার। কিন্তু এই কলিজা গর্ভপাত ঘটাতে পারে যদি সেটি কোনো অসুস্থ প্রাণীর হয়ে থাকে। তাই কলিজা খাওয়ার সময়ে কিছুটা সচেতন থাকা উচিত।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 28 - Rating 6 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)