জানেন কীভাবে ঘুমালে আপনার অনেক শারীরিক সমস্যার সমাধান হবে?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস February 14, 2017 1,175
জানেন কীভাবে ঘুমালে আপনার অনেক শারীরিক সমস্যার সমাধান হবে?

ঘাড় ও পিঠের ব্যথা নিত্যসঙ্গী? বদহজমে শরীর বরবাদ? মনমেজাজ সবসময় তিরিক্কি? কেন হচ্ছে, ভেবে কূল পাচ্ছেন না? শোওয়ার অভ্যাসই পাল্টে দিতে পারে সব কিছু। ভয়ে ঘুম, নাকি ঘুমে ভয়? যাই হোক, ঘুমোচ্ছেন তো? পাক্কা ৭-৮ ঘণ্টা? নাকি আধুনিক লাইফস্টাইলের ঠেলায় জীবন থেকে ঘুম আউট? রাত জেগে কাজ।


তার ওপর সোশ্যাল মিডিয়ায় উঁকিঝুঁকি। বিপদটা নিশ্চয়ই জেনে গেছেন। আমরাই জানিয়েছি। কীভাবে মৃত্যু হাতছানি দিচ্ছে। তবে, একটা প্রশ্ন উঠতেই পারে। ঘুমোবেন, কিন্তু কীভাবে? কারণ, শোওয়ার দোষে শরীর যেতে পারে গোল্লায়।


দেখুন আমরা কীভাবে ঘুমোই-


ফোয়েটাস। পাশ ফিরে, হাঁটু ভাঁজ করে প্রায় বুকের কাছে। বালিশ আঁকড়ে।


লগ। পাশ ফিরে পা সোজা। হাত নিচে।


ইয়ার্নার। পাশ ফিরে পা সোজা। হাত ছড়ানো।


সোলজার। চিত হয়ে, পা সোজা। হাত দুপাশে।


ফ্রিফলার। উপুড় হয়ে, পা ছড়ানো। বালিশের ওপর হাত।


স্টারফিশ। চিত হয়ে, হাত-পা ছড়ানো।


জীবনের তিন ভাগের এক ভাগ সময় আমরা ঘুমিয়ে কাটাই। তাই, শরীর-স্বাস্থ্য, মন, মুড নির্ভর করে একটা সুন্দর, সাউন্ড স্লিপের ওপর। কিন্তু ঘুমোবেন কীভাবে? কোন ভঙ্গি ঠিক, কোনটা ভুল?


আমেরিকান অ্যাকাডেমি অফ স্লিপ মেডিসিনের গবেষকরা বলছেন, স্টারফিশ ও সোলজার ভঙ্গিই সেরা। মাথা, ঘাড়, মেরুদণ্ড ঠিক থাকে। সহজে ব্যথা হয় না। মুখের চামড়া সহজে কুঁচকে যায় না। ত্বক থাকে মসৃণ। চিত হয়ে শুলে অ্যাসিডিটি হওয়ার সম্ভাবনা কমে। তবে নাক ডাকার একটা প্রবণতা থাকে।


লগ ও ইয়ার্নার ভঙ্গিতেও শোওয়া যেতে পারে। যাঁদের স্লিপ অ্যাপনিয়া রয়েছে, নাক ডাকার প্রবণতা রয়েছে, পিঠ ও ঘাড়ে ব্যথা হয় এবং অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের এই ভঙ্গিতে শোওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা। তবে, এই ভঙ্গিতে সহজেই কুঁচকে যায় চামড়া।


ফ্রিফলার ভঙ্গি বিপজ্জনক। উপুড় হয়ে শুলে সবচেয়ে বেশি বিপদ। অস্থিসন্ধি ও পেশির ওপর চাপ পড়ে। শরীরে ব্যথা বাড়ে, অসাড় হয়ে যেতে পারে শরীর। স্বাভাবিক রক্ত সঞ্চালনে ব্যাঘাত ঘটে। তবে, এই ভঙ্গিতে শুলে নাক ডাকে না।


ফোয়েটাস ভঙ্গিতে শুলে আরাম হয় ঠিকই, কিন্তু বিপদ আছে। ঘাড় ও পিঠে ব্যথা অনিবার্য। গবেষকরা বলছেন, এই ভঙ্গিতে শুলে মহিলাদের বক্ষসৌন্দর্য নষ্ট হতে পারে। -জিনিউজ