প্রতিদিন সকালে একঘণ্টা আগে ওঠার উপকারিতা

লাইফ স্টাইল 21st Jan 17 at 1:32pm 878
Googleplus Pint
প্রতিদিন সকালে একঘণ্টা আগে ওঠার উপকারিতা

সকালে ঘুম থেকে নিজ ইচ্ছে থেকে কেউ উঠে যায় এমন মানুষ পাওয়া কঠিন। তবে সকালে ঘুম থেকে উঠে একটু হাঁটাহাঁটি করা যেমন স্বাস্থ্যর পক্ষে ভালো তেমনি তা আপনার মানসিকতার জন্যও ভালো। আপনি যখন আপনার প্রতিদিনের নিয়মের বাইরে ঘুম থেকে উঠে নিজেকে অভ্যস্ত করতে পারবেন তখন আপনার মাঝে ব্যতিক্রম একটি পরিবর্তন আসবে। এটি আপনাকে যেমন নিয়মের মাঝে থেকে কাজ করতে সাহায্য করবে তেমনই আপনাকে করবে আরো একটু প্রাণচঞ্চল। তাই কিছু কাজের মাধ্যমে আপনি আপনার মাঝে এই সকালে একটু আগে ওঠার অভ্যাসটি আনতে পারেন।


মানসিক প্রস্তুতি

আপনি যখন আপনার মস্তিষ্কে এই তথ্যটি পাঠাবেন যে আপনাকে ঘুম থেকে তাড়াতাড়ি উঠতে হবে, দেখবেন আপনি যত গভীর ঘুমের মাঝেই থাকুন না কেনো আপনি উঠে যাচ্ছেন। এতে আপনি আপনার দৈনন্দিন কাজ যেমন খুব তাড়াতাড়ি করতে পারবেন ঠিক তার সাথে সাথে আপনার কাজগুলোকে গুছিয়ে নিতে পারবেন খুব সহজভাবে।


ব্যায়াম

কাজের চাপে বলুন কিংবা আলসেমিতে আমাদের প্রতিদিন ব্যায়াম করা হয়ে ওঠে না। তাই সকালে একটু তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠা ভালো। এতে আপনি বাড়ির ছাদে একটু হাঁটাহাঁটি করতে পারেন এবং কিছু ফ্রিহ্যান্ড এক্সারসাইজ করে নিতে পারেন। এতে আপনি সারা দিন কাজ করার শক্তি যেমন পাবেন তেমনি কাজের প্রতি মনোযোগও বাড়বে।


সকালের নাস্তা

সকালের নাস্তা করে অফিসে গিয়েছেন কিংবা ভার্সিটি গিয়েছেন এমন মানুষ পাওয়া কঠিন। আর এর মূল কারণ হচ্ছে সকালে দেরি করে ঘুম থেকে ওঠা। আপনি যদি আপনার হাতে কিছুটা সময় রেখে বের হন তবে আপনি আপনার সারা দিনের কাজ খুব সহজে যেমন করতে পারবেন ঠিক তেমনভাবে সকালের নাস্তাটাও করে নিতে পারবেন।


প্রাণবন্ত

আপনি যখন ঘুম থেকে উঠে কফি কিংবা চা খেয়ে নিজের মতো তৈরি হয়ে বের হতে পারবেন তখন আপনার মাঝে এক ধরনের প্রাণবন্ত ব্যপার কাজ করবে। কিন্তু যখন তার বিপরীত হয় আপনার মাঝে থাকে হন্তদন্তভাবে কাজ করার চেষ্টা আর হাজার ভুল। তাই কাজের বেলায় যাতে ভুল না হয় এবং আপনি খুব সহজে কাজগুলো গুছিয়ে নিতে পারেন তাই সকালে ঘুম থেকে ওঠা যেমন জরুরি তেমনি ভালো একটি অভ্যাস।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 12 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)