শীতে ঝলমলে ত্বক পেতে করণীয়

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস December 22, 2016 803
শীতে ঝলমলে ত্বক পেতে করণীয়

শীতের শুষ্কতায় ত্বকের দ্যুতি হারিয়ে যায়, তাই প্রয়োজন হয় বাড়তি যত্ন। ভারতীয় ব্র্যান্ড ‘জাস্ট হার্ভস’য়ের পরিচালক মেঘা সাভলক ঠাণ্ডা মৌসুমে ত্বকের হারানো দীপ্তি ফিরিয়ে আনার জন্য করণীয় কিছু উপায় বাতলে দেন। এখানে সেগুলো তুলে ধরা হল।


- শীতে নিয়ম করে ত্বক পরিষ্কার করতে হবে। কুসুম গরম পানি দিয়ে রাতে ঘুমানোর আগে আর্দ্রতা যোগাবে এমন ফেইসওয়াশ ব্যবহার করে ত্বক পরিষ্কার করতে হবে।


- মালিশ ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এই আবহাওয়ায় দিনে অন্তত একবার হাত ঘুরিয়ে আলতো ভাবে ত্বকে মালিশ করুন।


ত্বক উপযোগী ময়েশ্চারাইজার ক্রিম বা তেল দিয়ে হালকাভাবে উপরের দিকে মালিশ করতে হবে। এতে ত্বক কোমল থাকবে। কখনও ত্বকে বেশি জোরে মালিশ করবেন না এতে চামড়া ঝুলে যেতে পারে।


- শীতে ত্বক আর্দ্রতা হারায়। তাই মৃত কোষের সংখ্যাও বৃদ্ধি পায়। সঙ্গে জমে ধুলাবালি। এ সমস্যা থেকে মৃক্তি পেতে দুএক দিন পরপর ত্বক এক্সফলিয়েট করতে হবে। এ জন্য বাজারে কিনতে পাওয়া যায় এমন স্ক্রাবার ব্যবহার করা যেতে পারে বা ঘরেও তৈরি করে নেওয়া যায়।


মুখের ত্বকের পাশাপাশি হাত ও পায়ের ত্বকও এক্সফলিয়েট করতে হবে। এই আবহাওয়ায় ঠোঁটের ত্বকও শুষ্ক হয়ে যায়। তাই ঠোঁটেও স্ক্রাবার ব্যবহার করতে হবে। চিনি ও মধু দিয়ে ঘরেই স্ক্রাবার তৈরি করে নেওয়া যায়।


- শীতেও ত্বক সূর্যের তাপে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এর থেকে রক্ষা পেতে উপযোগী ফেইসমাস্ক ব্যবহার করতে হবে। পাশাপাশি প্রচুর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে, কারণ ঠাণ্ডা বাতাসে ত্বক শুষ্ক হয়ে গেলে তা সহজে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।


- অনেকেই মনে করেন শীতে সানস্ক্রিন ব্যবহার জরুরি নয়। কিন্তু কুয়াশা ঢাকা দিনগুলোতেও সূর্যের রশ্মি ত্বকের জন্য সমান ক্ষতিকর। তাই ঘর থেকে বের হওয়ার ১৫ থেকে ২০ মিনিট আগে ৩০ বা এর বেশি এসপিএফ সমৃদ্ধ সানস্ক্রিন লাগাতে হবে।


- এই মৌসুমে ঠোঁট আর্দ্রতা হারায় খুব সহজেই। তাই সবসময় হাতের কাছে লিপবাম রাখতে হবে। দিনে অন্তত চার থেকে পাঁচবার লিপবাম লাগিয়ে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে বেশি করে লিপবাম লাগিয়ে নিতে হবে।


- বাহ্যিক যত্নের পাশাপাশি ভিতর থেকেও যত্ন নেওয়া জরুরি। প্রচুর পরিমাণ পানি পান করতে হবে এবং তাজা শাকসবজি ও ফলমূল খেতে হবে যেন ত্বক ভেতর থেকে আর্দ্রতা পায়। এই মৌসুমে প্রচুর ভিটামির সি এবং জিঙ্ক সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে, যেন ত্বকের নমনীয়তা বজায় থাকে।


- বাজারজাত ফেইসমাস্ক বা স্ক্রাবারের বদলে ঘরে তৈরি মাস্ক ও স্ক্রাবার ব্যবহার করুন। মধু, টক দই, বাদাম তেল, অ্যালোভেরা, কলা, জলপাই-তেল, টমেটোর রস ইত্যাদি এই মৌসুমে ত্বকের জন্য দারুণ উপকারী।


- শীতের রাতে ত্বকের বাড়তি যত্ন বেশি জরুরি। তাই রাতে ঘুমানোর আগে ত্বকে ভালোভাবে নাইট ক্রিম লাগিয়ে নিতে হবে। এতে সকালে পাবেন কোমল ও আর্দ্র ত্বক। তাছাড়া চোখের চারপাশের ত্বক বেশি পাতলা হয়। একে সুরক্ষিত রাখতে ভালো আই ক্রিম ব্যবহার করা উচিত।