একজন বসের মধ্যে কর্মীরা যে পাঁচটি বৈশিষ্ট্য দেখতে চান

লাইফ স্টাইল 25th Nov 16 at 1:23pm 779
Googleplus Pint
একজন বসের মধ্যে কর্মীরা যে পাঁচটি বৈশিষ্ট্য দেখতে চান
কর্মীরা একজন বসের মধ্যে কী চান আর বাস্তবে কী পান তার মধ্যে একটি বড় ফারাক রয়েছে। নতুন এক গবেষণায় এমনটিই দেখা গেছে।

নেতৃত্ব বিষয়ক প্রশিক্ষণ সরবরাহকারী ডেল কার্নেগি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, কর্মীরা তাদের বসদের মধ্যে যেসব গুণাবলী দেখতে চান বসরা সেসব গুণাবলীই সবচেয়ে কম ধারণ করেন।

বিশেষত, ৮৪% কর্মী বলেছেন, তারা মনে করেন তাদের বসদের নিজেদের ভুল স্বীকার করাটা তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। তবে মাত্র ৫১% বস নিজেদের ভুল স্বীকার করেন বলে জানিয়েছেন কর্মীরা। আর ৮৮% কর্মী বলেছেন তারা এমন বসদের পছন্দ করেন যারা তাদের কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন। তবে মাত্র ৬০% কর্মী জানিয়েছেন তাদের বসরা তাদের কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন।

গবেষণায় আরো দেখা যায়, ৮৭% কর্মী বলেছেন, যে বসরা তাদের স্টাফদের প্রতি আন্তরিক মূল্যায়ন প্রদর্শন করেন তারা ভালো বস। তবে মাত্র ৬১% কর্মী বসদের কাছ থেকে তা পান বলে জানান।

বসরা তাদের কাজের মূল্যায়ন করলেও কর্মীরা বেজায় খুশি হন। ৮৬% কর্মী বিষয়টি তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন। তবে মাত্র ৬০% কর্মী তাদের বসের কাছ থেকে এই ধরনের আচরণ পান বলে জানান।

আর কর্মীরা এমন বসদেরই বেশি পছন্দ করেন যারা নিজেদের এবং অন্যদের উন্নয়ন ঘটান। এতে তাদের পরস্পরের মধ্যে ধ্যান-ধারণা ভাগাভাগি নিরাপদ হয়, নতুন জিনিস করার চেষ্টা করা, ভুল করা, তাদের থেকে শিক্ষা গ্রহণ এবং উন্নতি করাও নিরাপদ হয়।

• সার্বিকভাবে কর্মীরা বসদের যে পাঁচটি গুণাবলী তাদেরকে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত এবং উৎসাহিত করে বলে দাবি করেন সেগুলো হলো....

১. উন্নতিতে সাহস যোগায় : জরিপে অংশগ্রহণকারী ৮০% কর্মী বলেছেন অনুপ্রেরণাদায়ী বসরা সাহস যোগান এবং কর্মীদের উন্নয়নে সহায়তা করেন।

২. প্রশংসা এবং মূল্যায়ন করেন : জরিপে অংশগ্রহণকারী কর্মীদের এক তৃতীয়াংশই বলেছেন, ভালো বসরা কর্মীদের কাজের প্রশংসা এবং মূল্যায়ন করেন।

৩. কর্মীদের পারফর্মেন্সের উন্নতির স্বীকৃতি দেন : ৭০ শতাংশেরও বেশি কর্মী বলেছেন বসদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্যগুলোর একটি হলো কর্মীদের কাজের পরফর্মেন্সের উন্নতি হলে তার স্বীকৃতি প্রদান।

৪. সমালোচনা করার আগে নিজের ঘাটতিগুলো স্বীকার করেন : গবেষণায় দেখা গেছে, ৬৮% কর্মী সেই বসদের দ্বারা অনুপ্রাণিত হন যারা অন্যের সমালোচনা করার চেয়ে বরং নিজেদের ঘাটতিগুলোকে স্বীকার করেন।

৫. কর্মীদেরকে মুখ রক্ষার অনুমতি দেন : ৬০% কর্মী বলেছেন, তারা এমন বসকে মূল্যায়ন করেন যিনি তাদেরকে ভুল করলে অপমান না করে বরং তা শুধরে নেওয়ার সুযোগ দেন।

নিয়োগকর্তারাও বসরা তাদের কর্মীদেরকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দিচ্ছেন কিনা তা নিশ্চিত হতে চান। যারা তাদের শীর্ষ কর্মীদের ওপর নির্ভর করতে চান। গবেষণায় আরো দেখা গেছে যে, সরাসরি একজন বসের কাছ থেকে সহায়তামূলক আচরণ পেলে কর্মীদের একই প্রতিষ্ঠানে কাজ করার প্রবণতা বাড়ে ৬৭%।

গবেষণায় আরো দেখা গেছে, বসরা সৎ, বিশ্বস্ত এবং নিজেদের বিশ্বাসে অবিচল থাকলে কর্মীরা তাদের চাকরি নিয়ে সন্তুষ্ট থাকেন। আর যেহেতু প্রতিভার লড়াই দিনকে দিন আরো বেশি প্রতিযোগিতামূলক হয়ে উঠছে সেহেতু কর্মীদের সঙ্গে ইতিবাচক ব্যবহার করাটা বসদের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। আর ভালো আচরণ করলেই একমাত্র কর্মীরা অনুপ্রাণিত হবে ও বেশিদিন একটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করবে এবং নিজেদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবেন।

বসদের ভালো আচরণ কর্মক্ষেত্রে কর্মীদের সুখ বাড়াতেও সহায়ক ভুমিকা পালন করে। সবমিলিয়ে জরিপে অংশগ্রহণকারীদের মাত্র ২৪% বলেছেন তারা তাদের কর্ম নিয়ে সন্তুষ্ট। তবে যখন বসরা প্রায়ই উন্নয়নমূলক এবং আন্তঃব্যক্তিগত নেতৃত্বমূলক আচরণ প্রদর্শন করেন তখন সন্তুষ্টি ৩৩% বেড়ে যায়।

গবেষণাটি বিশ্বব্যাপী ৩,৩০০ পূর্ণকালীন কর্মীর ওপর পরিচালিত জরিপের ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। জরিপে যুক্তরাষ্ট্র থেকে অংশগ্রহণ করেন ৫১৫ জন।
Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 16 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)