জাদুবিদ্যায় যৌনাঙ্গ আটকে পরকীয়া ফাঁস! (ভিডিও সহ)

ভয়ানক অন্যরকম খবর November 20, 2016 3,812
জাদুবিদ্যায় যৌনাঙ্গ আটকে পরকীয়া ফাঁস! (ভিডিও সহ)

অবিশ্বাস্য এক কবিরাজি পদ্ধতি ব্যবহার করে স্ত্রীর পরকীয়া হাতেনাতে ধরে ফেললেন এক যুবক। অনেকদিন ধরে তিনি স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন। কিন্তু প্রমাণের অভাবে কোনোভাবেই কিছু করতে পারছিলেন না। এরপর এই অবিশ্বাস্য কবিরাজি পদ্ধতি অবলম্বন করে স্ত্রীর পরকীয়া ধরেন স্বামী।


ঘটনাটি কেনিয়ার কিসি অঙ্গরাজ্যের। গোপনীয়তার স্বার্থে ওই যুবক বা তার স্ত্রীর নাম প্রকাশ করা হয়নি।


জানা গেছে, সেই যুবক পেশায় ব্যবসায়ী। ব্যবসার খাতিরে প্রায়ই তাকে বাইরে থাকতে হয়। এ সুযোগে তার স্ত্রী অন্য যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। কিন্তু কোনোভাবে স্ত্রীকে হাতেনাতে ধরতে পারছিলেন না।


স্ত্রীকে পরকীয়ার ব্যাপারে অভিযোগ করলেও কোনো পাত্তাই দিতেন না। স্ত্রীর পরকীয়ার ব্যাপারে প্রায় নিশ্চিতই ছিলেন স্বামী। তবে প্রমাণ না থাকায় হাতেনাতে ধরতে পারতেন না। তাই কোনো উপায় না পেয়ে তিনি এলাকার এক কবিরাজের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলাপ করেন।


কবিরাজ তাকে জানান, তিনি চাইলে তার স্ত্রীকে হাতেনাতে ধরার ব্যবস্থা করে দিতে পারেন। তবে এ জন্য তিনি যে পারিশ্রমিক চাইবেন তাই তাকে দিতে হবে। স্ত্রীর পরকীয়া ধরার জন্য যুবক কবিরাজের সঙ্গে চুক্তিতে রাজি হন।


এবার কবিরাজ শুরু করেন তার কেরামতি। তিনি এমন জাদুবিদ্যা করেন, যদি ওই যুবকের স্ত্রী অন্যকোনো পুরুষের সঙ্গে যৌনমিলন করে তাহলে দুজন এক সঙ্গে আটকে যাবে। ‍অর্থ্যাৎ সে যুবকের পুরুষাঙ্গ নারীর যৌনাঙ্গ থেকে আলাদা হবে না। আর সেই সঙ্গে শুরু হবে অসহনীয় জ্বালা-যন্ত্রণা। কবিরাজ যতক্ষণ পর্যন্ত তাদেরকে জাদু মুক্ত না করবেন ততক্ষণ পর্যন্ত কোনোভাবেই আলাদা হতে পারবে না তারা।


এবার কবিরাজের কথামত জাদুবিদ্যা এঁটে দিয়ে ব্যবসার খাতিরে বাইরে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বিদায় নেন স্বামী। এবং তিনি বাইরে না যেয়ে স্ত্রীর পরকীয়া ধরার জন্য বাড়ি থেকে কিছু দূরে লুকিয়ে থাকেন।


এইবার ঘুঘু এসে ফাঁদে আটকা পড়ে। অর্থাৎ, প্রেমিক যুবক এসে সে নারীর সঙ্গে যৌনমিলন শুরু করে এবং একে অপরের সঙ্গে আটকে যায়। সেই সঙ্গে শুরু হয় জ্বালা-যন্ত্রণা। অসহ্য যন্ত্রণায় চিৎকার শুরু করেন তারা।


তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী এসে বাড়িতে জড়ো হয়। কিন্তু তারাও দুজনকে আলাদা করতে ব্যর্থ হয়। এরপর স্বামী এসে বিছানার চাদরসহ জড়িয়ে কবিরাজের কাছে নিয়ে আসেন। কবিরাজ জাদুমুক্ত করলে তারা মুক্ত হয়।


পরে অন্যের স্ত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক করায় সেই প্রেমিক যুবককে জরিমানা করেন কবিরাজ। জরিমানা নেওয়ার পর তাকে মুক্ত করা হয়। কিন্তু যুবকের স্ত্রীর কি শাস্তি হয়েছিল তা জানা যায়নি।


স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে কবিরাজ জানান, তাদের এলাকায় পরকীয়ার প্রভাব বেড়ে চলেছে। তাই যেসব ভুক্তভোগী মানুষ তার কাছে আসে তাদেরকে তিনি এভাবে সেবা দিয়ে থাকেন।


সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পর অনেকে ঘটনাটি বিশ্বাস করতে চাননি। কিন্তু ভিডিওতে অবিশ্বাস্য ঘটনাটি দেখা যায়। অনেকে যৌনমিলনের সময় আঁটকে যাওয়ার বিষয়কে স্বাস্থ্যগত ক্রুটি হিসেবে মনে করছেন। যদিও এ বিষয়ে কোনো বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলা হয়নি।


» ভিডিও টি দেখতে এখানে যান