নামাজের সময় কারো সামনে দিয়ে যাওয়া যাবে কি?

ইসলামিক শিক্ষা November 15, 2016 3,001
নামাজের সময় কারো সামনে দিয়ে যাওয়া যাবে কি?

প্রশ্ন : নামাজ পড়ার সময় সামনে দিয়ে যাওয়া যাবে কি?


উত্তর : নামাজের সামনে দিয়ে যাওয়া হারাম। একজন মুসল্লি নামাজ পড়ছেন, এমন অবস্থায় কেউ যদি ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁর সমনে দিয়ে অতিক্রম করে যান, তাহলে তিনি হারাম কাজ করলেন।


এ বিষয়ে রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘যদি কেউ জানত মুসল্লির সামনে দিয়ে অতিক্রমকারী ব্যক্তি এতে কত বড় অপরাধ বা অন্যায় রয়েছে, তাহলে সে ৪০ বছর দাঁড়িয়ে থাকত।’ এতে বোঝা যায়, মুসল্লির সামনে দিয়ে অতিক্রম করা হারাম।


কিন্তু মুসল্লির সামনে দিয়ে বলতে কী বোঝায়? মুসল্লির সেজদার যতটুকু জায়গা রয়েছে, ততটুকু জায়গা দিয়ে অতিক্রম করতে পারবে না। এটা হলো ইসলামের বিধান।


আমরা আসলে না জানার কারণে জিনিসগুলোকে সীমা লঙ্ঘনে নিয়ে যাই এবং বাড়াবাড়ি করে ফেলি। রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘মুসল্লির সেজদা পর্যন্ত এতটুকু জায়গার অধিকার আছে।’ এর মধ্যে যদি কেউ প্রবেশ করে, তাহলে মুসল্লির অধিকার আছে তাঁকে বাধা দেওয়ার।


কিন্তু সেজদার জায়গার বাইরে দিয়ে, সামনে দিয়ে চলে গেলে তাতে কোনো অসুবিধা নেই। তা না হলে তো মসজিদে লোক নামাজ পড়লে সামনের কেউ বের হতে পারবে না। প্রয়োজনে তো মানুষকে বের হতে হবে।


মুসল্লির অধিকার হলো, তিনি যেখানে দাঁড়ালেন, সেখান থেকে তাঁর সেজদার জায়গা পর্যন্ত। এর মধ্য দিয়ে কেউ যেতে পারবে না এটি বড় গুনাহর কাজ। কিন্তু সেজদার বাইরে, সামনে দিয়ে যেতে পারবে।


কারণ, এটি রাসূল (সা.) নিষেধ করেননি। নিষেধ করেছেন শুধু তাঁর সেজদার জায়গার ভেতর দিয়ে। এটা হাদিসে একদম স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে। তাঁর সামনে, কিন্তু বহু দূরে না।


বহু দূর দিয়ে কেউ অতিক্রম করতে পারে। কারণ, তা না হলে তো মসজিদে ঢুকলে আর কেউ বের হতে পারবে না। এ জন্য এটাকে কঠিন করার বিষয় না। এগুলো বোঝার বিষয় রয়েছে।


সূত্রঃ আপনার জিঙ্গাসা, এনটিভি অনলাইন