জ্বলিতেছে বটে, কিন্তু আনন্দে নাচিতেও হইতেছে!!!!

আমাদের নীতিকথা June 23, 2016 2,163
জ্বলিতেছে বটে, কিন্তু আনন্দে নাচিতেও হইতেছে!!!!

একবার এক বিজ্ঞ ব্যক্তি তাহার শিষ্যদের বলিলেন, এই নাও কাঁচামরিচ। একটা বিড়ালের দিকে আঙ্গুল দেখাইয়া বলিলেন, বিড়ালটিকে কাঁচা মরিচ খাওয়াইতে হইবে।

প্রথম শিষ্য বিড়ালকে ধরিয়া তাহার মুখে কাঁচা মরিচ ঠেসিয়া দিতে লাগিল। সে ব্যর্থ হইলো, বিড়ালের নখের আঘাতে কিছু আহতও হইলো।

পরের শিষ্য এক বাটি দুধ আনিয়া তাহাতে মরিচ মিশাইয়া দিল। বিড়াল আসিয়া গন্ধ শুঁকিয়া চলিয়া গেল।

এইভাবে প্রত্যেকেই চেষ্টা করিয়া ব্যর্থ হইলো।

শেষে বিজ্ঞ ব্যক্তি বলিলেন, আমাকে দাও।

তিনি একটি মরিচ নিয়া বিড়ালের পশ্চাৎদেশে ঘষিয়া দিলেন।

সকলে অবাক হইয়া দেখিল, বিড়াল নিজের পশ্চাৎদেশের মরিচ স্বেচ্ছায় চাটিয়া খাইতেছে।

..........................

পাকিস্তানীরা আমাদের জোর করিয়া উর্দু খাওয়াইতে চাহিয়াছিল। ব্যর্থ হইয়াছে।

ভারতীয়রা আমাদের পশ্চাৎদেশে হিন্দি ডলিয়া দিয়াছে। জ্বলিতেছে বটে, কিন্তু আনন্দে নাচিতেও হইতেছে।

(copied)