রোজাদারের জন্য যে কাজ করা সুন্নাত

ইসলামিক শিক্ষা June 22, 2016 1,695
রোজাদারের জন্য যে কাজ করা সুন্নাত

রমজানের রোজা পালনে রোজাদারের জন্য রয়েছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এর কিছু কাজ রয়েছে যা আদায় করা সুন্নাত। তা তুলে ধরা হলো-


১. রোজাদারকে ইফতারি করানো সুন্নাত। যে রোজাদারকে ইফতারি করাবে, সে তার অনুরূপ সওয়াব পাবে এবং এতে করে রোজাদারের কোনো নেকি কমানো হবে না।


২. রোজাদারের জন্য সুন্নাত হলো-


>> বেশি বেশি জিকির করা;

>> কুরআন তিলাওয়াত করা;

>> দান-সাদকা করা;

>> অসহায়দের সাহায্য-সহযোগিতা করা;

>> তাওবা-ইস্তিগফার করা;

>> রোগীর সেবা করা;

>> আত্মীয়তার সম্পর্ক অটুট রাখা এবং

>> দোয়া করা।


৩. ইফতারি খাওয়ার শুরুতে ‘বিসমিল্লাহ’ আর শেষে ‘আল-হামদুলিল্লাহ’ বলা।


৪. দিনের যে কোনো সময় রোজাদারের মিসওয়াক করা সুন্নাত। চাই তা দিনের প্রথমে হোক বা শেষে হোক ।


৫. রোজাদারকে কেউ গালি দিলে বা তার সাথে ঝগড়া করলে এ কথা বলা যে, আমি রোজাদার, আমি রোজাদার।


৬. রমজানের রাত্রিগুলোতে ইশার নামাজের পরে তারাবির নামাজ আদায় করা সুন্নাত। আর যে ইমামের সাথে তারাবির নামাজ শেষ করে বের হবে, তার জন্য সমস্ত রাত্রির নামাজের নেকি লেখা হবে।


৭. রমজানে রোজাদারের জন্য ওমরা করা সুন্নাত। কারণ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘রমজানে একটি ওমরা করা হজের সমান সাওয়াব।


৮. রমজানের শেষ দশকে সুন্নাত হচ্ছে বিভিন্ন প্রকার ইবাদাতে বেশি বেশি পরিশ্রম করা, সমস্ত রাত নিজে জাগরণ করা এবং পরিবারের সকলকে জাগিয়ে রেখে ইবাদাত করানো।


আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সকল রোজাদারকে এ কাজগুলো করার তাওফিক দান করুন। আমিন।