যে পুরস্কার রোজাদারের জন্যই নির্ধারিত

ইসলামিক শিক্ষা June 11, 2016 977
যে পুরস্কার রোজাদারের জন্যই নির্ধারিত

রহমত বরকত ক্ষমা ও নাজাতের মহা সুসংবাদ হলো পবিত্র রমজান। মুসলিম উম্মাহর নিকট এ মাসটি আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের বসন্তকাল হিসেবে পরিচিত। এ মাসের ইবাদাত বন্দেগির সাওয়াব ও ফজিলত অন্যান্য মাসের চেয়ে অনেক বেশি। যারা এ মাসের রোজা পালনে সফলতা লাভ করবে; জান্নাতের রাইয়ান নামক দরজা শুধুমাত্র তাদের জন্যই নির্ধারিত। হাদিসে এসেছে-


হজরত সাহল রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, জান্নাতের মধ্যে রাইয়ান নামক একটি দরজা রয়েছে। কিয়ামতের দিন এ দরজা দিয়ে শুধুমাত্র রোজাদার লোকেরাই প্রবেশ করবে। তাদের ব্যতিত এ দরজা দিয়ে অন্য কাউকে (জান্নাতে) প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। ঘোষণা দেয়া হবে যে, রোজাদার লোকেরা কোথায়! তখন তারা (সকল রোজাদার) দাঁড়াবে। তাদের ছাড়া আর কেউ এ দরজা দিয়ে প্রবেশ করবে না। তাদের প্রবেশের পরই দরজা বন্ধ করে দেয়া হবে। যাতে এ দরজা দিয়ে আর কেউ প্রবেশ করনে না পারে।’ (বুখারি)


পরিশেষে…

বিশ্বনবির উপরোক্ত ঘোষণায় এ কথা নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, রোজাদারদের মধ্যে যারা রোজা পালনের মাধ্যমে আল্লাহর ভয় এবং ভালোবাসা অর্জন করতে পারবে। অর্থাৎ যে ভয় অন্যায় কাজ করা থেকে বিরত রাখবে আর যে ভালোবাসা পূণ্যেরে কাজের আকর্ষণ বাড়াবে। আল্লাহ তাআলার সে ভয় এবং ভালোবাসা রোজা পালনের মাধ্যমেই অর্জন করতে হবে।


সুতরাং আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সকল রোজাদারদেরকে পবিত্র রমজান মাসে রোজা পালনের মাধ্যমে তাঁর ভয় এবং ভালোবাসা লাভ করে রাইয়ান নামক দরজা দিয়ে জান্নাতে প্রবেশ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।